বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'টাকা চাওয়ার লোক বেশি', 'জাগো বাংলা'য় লিখলেন BJP-র টিকিটে ভোটে লড়া প্রবীর ঘোষাল
জাগো বাংলায় এবার বেসুরো বিজেপি নেতা প্রবীর ঘোষাল।
জাগো বাংলায় এবার বেসুরো বিজেপি নেতা প্রবীর ঘোষাল।

'টাকা চাওয়ার লোক বেশি', 'জাগো বাংলা'য় লিখলেন BJP-র টিকিটে ভোটে লড়া প্রবীর ঘোষাল

  • 'সঙ্গী' রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ফিরে গিয়েছেন তৃণমলে। আর এবার বিজেপির বিরুদ্ধে কলম ধরে তৃণমূলে ফেরার ইঙ্গিত দিলেন প্রবীর ঘোষাল।

তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গ ছেড়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে করে চার্টার্ড প্লেনে দিল্লি গিয়ে অমিত শাহের বাসভবনে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন প্রবীর ঘোষাল। দীর্ঘদিন ধরে মমতা বন্দনা করা এই প্রাক্তন সাংবাদিক এরপর বিজেপির টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে উত্তরপাড়া থেকে লড়াইও করেন। এবং হারেন। এহেন প্রবীর ঘোষাল নির্বাচনের পর থেকেই বিজেপিতে নিষ্ক্রিয়। তাঁর 'সঙ্গী' রাজীব ফিরে গিয়েছেন তৃণমলে। আর এবার প্রকাশ্যেই বিজেপির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন প্রবীর। বরং বলা ভালো কলম চালালেন। তৃণমূলের মুখপত্র জাগো বাংলায় সম্পাদকীয় বিভাগে বিজেপি নিয়ে বিস্ফোরক সব অভিযোগ করেছেন প্রবীর ঘোষাল।

রাজীবের দলবদলের পরই প্রশ্ন উঠেছিল, এবার কি তবে ফিরবেন প্রবীরও? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বই লেখা এই সাংবাদিকের সঙ্গে যে 'যোগাযোগ' রয়েছে তা নিয়ে লুকিয়ে রাখেননি মমতা স্বয়ং। আর এবার 'জাগো বাংলা'য় প্রকাশিত হল প্রবীর ঘোষালের লেখা। প্রতিবেদনটির শিরোনাম: ‘কেন বিজেপি করা যায় না; ওখানে কাজ করার থেকে টাকা চাওয়ার লোক বেশি।’ প্রবীরবাবুর লেখায় উঠে আসে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া প্রবীর নামক 'বিজেপি কর্মী'র অডিয়ো ক্লিপ প্রসঙ্গটি।

প্রবীর ঘোষাল এদিন লিখেছেন, 'বিজেপিতে অসংখ্য শাখা সংগঠন। ৬০টিরও বেশি। পদাধিকারীরা সকলেই নিজেদের নেতা নেত্রী মনে করেন। কেউ কর্মী নন। তাঁদের সকলের আলাদা আলাদা দাবি সনদ। বেশিরভাগই অর্থকেন্দ্রিক।' এদিকে তৃণমূলের মুখপত্রে বর্তমান দল সম্পর্কে এহেন বিষোদগারে অনেকের মনেই জল্পনা জাগিয়েছে।

বন্ধ করুন