বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Presidency University: প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ, সাত সদস্যের কমিটি গড়ল কর্তৃপক্ষ
প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এসএফআই–টিএমসিপি’‌র সংঘর্ষ

Presidency University: প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ, সাত সদস্যের কমিটি গড়ল কর্তৃপক্ষ

  • সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এসএফআই–আইসির সঙ্গে টিএমসিপি’‌র সংঘর্ষ চলছে। দু’‌পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি, মারামারি পর্যন্ত হয়েছে। এমনকী এসএফআই সমর্থক ছাত্রকে মধ্যমগ্রামের বাড়িতে গিয়ে টিএমসিপি’‌র দুই নেতা হুমকি দেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বাম সমর্থক ছাত্রীদের শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে।

সম্প্রতি প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এসএফআই–টিএমসিপি’‌র সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল কলেজ স্ট্রিট চত্ত্বর। ক্যাম্পাসের অশান্তি রাস্তায় চলে আসায় রাতভর রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল। পুলিশকে নেমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হয়েছিল। বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রী আহত হয়েছিলেন। তাই এবার সাম্প্রতিক ঘটনাবলি খতিয়ে দেখতে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করল প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ঠিক কী ঘটেছে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে?‌ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, এই দুশো বছরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কেন এত অশান্তি?‌ তার তদন্ত করবে ওই কমিটি। এই কমিটি যাতে কাজ করে তার নির্দেশ পর্যন্ত দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। খুব দ্রুত কমিটিকে কাজ শুরু করতে বলা হয়েছে। ভূগোলের বিভাগীয় প্রধান সৌমেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ওই কমিটি গড়ে তোলা হয়েছে। অন্য কয়েকটি বিভাগের প্রধানও রয়েছেন এই কমিটিতে। আর নোডাল অফিসার করা হয়েছে ডিন অফ স্টুডেন্টসকে।

কমিটি কী পদক্ষেপ করতে পারে?‌ এই কমিটি প্রয়োজন হলে যে কাউকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। তারপর রিপোর্ট তৈরি করতে পারে। এমনকী জড়িতদের নাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানাতেও পারে। সেই রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

ঠিক কী ঘটেছিল বিশ্ববিদ্যালয়ে?‌ সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এসএফআই–আইসির সঙ্গে টিএমসিপি’‌র সংঘর্ষ চলছে। দু’‌পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি, মারামারি পর্যন্ত হয়েছে। এমনকী এসএফআই সমর্থক ছাত্রকে মধ্যমগ্রামের বাড়িতে গিয়ে টিএমসিপি’‌র দুই নেতা হুমকি দেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বাম সমর্থক ছাত্রীদের শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠেছে। পাল্টা অভিযোগ করেছে টিএমসিপিও। এই গোলমালের জেরে পঠনপাঠন শিকেয় উঠেছিল। তাই নড়েচড়ে বসে কর্তৃপক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

বন্ধ করুন