বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে ফোন নম্বর রহস্য, CBI তদন্তের নির্দেশ বিচারপতির

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে ফোন নম্বর রহস্য, CBI তদন্তের নির্দেশ বিচারপতির

কলকাতা হাইকোর্ট

আদালতকে তিনি জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর একটি অজানা নম্বর থেকে তাঁর কাছে একটি ফোন আসে। ফোনে তাঁকে বলা হয় প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের অফিসে এসে সভাপতির কাছ থেনে নিয়োগপত্র নিয়ে যান।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে এবার যুক্ত হল ফোন নম্বর রহস্য। অভিযোগ, ফোন করে নিয়োগপত্র নিতে তাঁকে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের অফিসে ডাকা হয়েছিল বলে দাবি করলেন এক অযোগ্য প্রার্থী। সেই নম্বরও আদালতকে জানিয়েছেন তিনি। নম্বর কার তা সিবিআইকে তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানি চলার সময় এক অযোগ্য ঘোষিত প্রার্থী বিচারপতিকে জানান, তাঁকে ফোন করে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের অফিসে নিয়োগপত্র নিতে ডাকা হয়েছিল। সেই নিয়োগপত্র নিয়ে চাকরিতে যোগদান করেন তিনি।

আদালতকে তিনি জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর একটি অজানা নম্বর থেকে তাঁর কাছে একটি ফোন আসে। ফোনে তাঁকে বলা হয় প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের অফিসে এসে সভাপতির কাছ থেনে নিয়োগপত্র নিয়ে যান। সেই মতো তিনি প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের তৎকালীন সভাপতির কাছ থেকে নিয়োগপত্র সংগ্রহ করেন।

এর পরই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন, ফোন করে নিয়োগপত্র বিলির এরকম কোনও নিয়ম সংসদের আছে না কি? না থাকলে কে ফোন করল ওই ব্যক্তিকে? ফোন কি প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের দফতর থেকে গিয়েছিল? তাহলে তো মারাত্মক ব্যাপার। নম্বর কার ও কোথা থেকে ফোন করা হয়েছিল তা অবিলম্বে খতিয়ে দেখুক সিবিআই।

 

বন্ধ করুন