বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রাথমিক দুর্নীতিতে পাকাপাকিভাবে চাকরি গেল আরও ৫৯ জনের, সব মিলিয়ে ২৫২

প্রাথমিক দুর্নীতিতে পাকাপাকিভাবে চাকরি গেল আরও ৫৯ জনের, সব মিলিয়ে ২৫২

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে সিবিআইয়ের পেশ করা তালিকা অনুসারে ২৬৮ জনের নিয়োগ বাতিল করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বরখাস্ত হওয়া প্রার্থীরা।

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে আরও ৫৯ জনের চাকরি বাতিলের নির্দেশ বহাল রাখল কলকাতা হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তাদের চাকরি বাতিলের নির্দেশ বহাল থাকবে বলে জানান। এ ফলে ২৬৮ জনের মধ্যে ২৫২ জনেরই চাকরি খারিজ হয়ে গেল।

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে সিবিআইয়ের পেশ করা তালিকা অনুসারে ২৬৮ জনের নিয়োগ বাতিল করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বরখাস্ত হওয়া প্রার্থীরা। মামলা হাইকোর্টে ফেরত পাঠিয়ে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দেয়, এই মামলায় চাকরি থেকে বরখাস্ত প্রত্যেককে পক্ষ করতে হবে। প্রত্যেকের বক্তব্য আলাদা ভাবে শুনতে হবে আদালতকে।

সেই মতো আদালতে হফনামা জমা দেন বরখাস্ত হওয়া প্রার্থীরা। সেই হলফনামা দেখে গত ২৩ ডিসেম্বর ৫৩ জনকে বরখাস্ত করার নির্দেশ বহাল রাখে আদালত। মঙ্গলবার আরও ১৪০ জনকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন বিচারপতি। বৃহস্পতিবার পাকাপাকিভাবে বরখাস্ত হলেন আরও ৫৯ জন। যার ফলে বরখাস্ত হওয়া মোট প্রার্থীর সংখ্যা হল ২৫২। এদের প্রত্যেকের বেতন বন্ধের নির্দেশও বহাল থাকবে।

এই মামলায় এখনো পর্যন্ত ২ জন শিক্ষককে পুনর্বহালের সিদ্ধান্ত জানিয়েছে আদালত। আরও একজনের আবেদন বিবেচনাধীন রয়েছে।

 

বন্ধ করুন