বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নম্বর দেওয়ায় বেনিয়ম, ২০১৪ প্রাথমিক টেটের ২৬৯ জনকে বরখাস্তের নির্দেশ আদালতের
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি (HT_PRINT)

নম্বর দেওয়ায় বেনিয়ম, ২০১৪ প্রাথমিক টেটের ২৬৯ জনকে বরখাস্তের নির্দেশ আদালতের

  • মামলাকারীদের অভিযোগ ছিল, ২০১৪ প্রাথমিক টেটে ২৬৯ জনকে অতিরিক্ত ১ নম্বর করে দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। কেন তারা এই অতিরিক্ত নম্বর দিয়েছে তার কোনও ব্যাখ্যা দিতে পারেননি সংসদের আধিকারিকরা।

২০১৪ প্রাথমিক টেটে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ২৬৯ জনকে চাকরি থেকে বরখাস্তের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। সোমবার মামলার শুনানি চলাকালীন নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সঙ্গে এই দুর্নীতির CBI তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার মধ্যে FIR দায়ের করে সিবিআইকে জিজ্ঞাবাসাদ শুরুর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

মামলাকারীদের অভিযোগ ছিল, ২০১৪ প্রাথমিক টেটে ২৬৯ জনকে অতিরিক্ত ১ নম্বর করে দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। কেন তারা এই অতিরিক্ত নম্বর দিয়েছে তার কোনও ব্যাখ্যা দিতে পারেননি সংসদের আধিকারিকরা। বিচারপতি আদালতে প্রশ্ন করেন, ২৩ লক্ষ পরীক্ষার্থীর মধ্যে বেছে বেছে এই ২৬৯ জনকে ১ নম্বর বেশি দেওয়া হল কেন? এর পরই ওই ২৬৯ জনকে চাকরি থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দেন বিচারপতি। তাদের বেতন বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সঙ্গে তারা যেন স্কুলে প্রবেশ করতে না পারেন তাও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

এদিন ২০১৪ প্রাথমিক টেট দুর্নীতির তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর নির্দেশ, সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার মধ্যে FIR দায়ের করে শুরু করতে হবে তদন্ত। আজ বিকেলেই সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হবে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি ও সচিবকে। একই সঙ্গে আদালত জানিয়েছে, ২০১৭ সালের টেটে যে অতিরিক্ত প্যানেল তৈরি করা হয়েছিল তাও বেআইনি।

বলে রাখি, প্রাথমিক টেট দুর্নীতিতে প্রাক্তন মন্ত্রী উপেন বিশ্বাসের উল্লেখ করা ‘রঞ্জন’ রহস্যের তদন্তভার ইতিমধ্যে সিবিআইকে দিয়েছে আদালত।

 

 

বন্ধ করুন