বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রাথমিক টেট নিয়ে জনস্বার্থ মামলায় নাক গলাতে নারাজ সুপ্রিম কোর্ট

প্রাথমিক টেট নিয়ে জনস্বার্থ মামলায় নাক গলাতে নারাজ সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্ট।

গত বছর ২২ জুলাই কলকাতা হাইকোর্টে ২০১৪ প্রাথমিক টেটের গোটা নিয়োগপ্রক্রিয়ার CBI তদন্ত চেয়ে জনস্বার্থ মামলা করেন আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। তাঁর অভিযোগ, ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিযুক্ত অনেকে ভুয়ো টেট সার্টিফিকেট দেখিয়ে চাকরি করছেন।

প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে দায়ের জনস্বার্থ মামলায় নাক গলাতে অস্বীকার করল সুপ্রিম কোর্ট। রাজ্য সরকারের আবেদন খারিজ করে মামলা হাইকোর্টে ফেরত পাঠালেন বিচারপতি। যার ফলে ফের একবার আদালতে গিয়ে বিফলমনোরথে ফিরতে হল রাজ্য সরকারকে।

২০১৪ সালের প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয়েছে জনস্বার্থ মামলা। সেই মামলাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল রাজ্য সরকার। তাদের দাবি, ২০১৪ সালের ঘটনায় ৮ বছর পর মামলা দায়েরের পিছনে উদ্দেশ কী? এই মামলা অন্তঃসারশূন্য। তাই মামলা খারিজ করা হোক। সওয়াল শুনে আদালত জানিয়েছে, এব্যাপারে আপাতত কোনও হস্তক্ষেপ করবে না সুপ্রিম কোর্ট। রাজ্য সরকারের যা বলার হাইকোর্টে বলতে হবে। মামলা খারিজের আবেদনও জানাতে হবে সেখানেই।

গত বছর ২২ জুলাই কলকাতা হাইকোর্টে ২০১৪ প্রাথমিক টেটের গোটা নিয়োগপ্রক্রিয়ার CBI তদন্ত চেয়ে জনস্বার্থ মামলা করেন আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। তাঁর অভিযোগ, ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিযুক্ত অনেকে ভুয়ো টেট সার্টিফিকেট দেখিয়ে চাকরি করছেন। অনেকে টেট ফেল করেও নিয়োগ পেয়েছেন। শাসকদলের নেতারা প্রকাশ্যে বলেছেন, তৃণমূল করলে তবেই চাকরি হবে।

এই মামলায় আদালতে রাজ্যের তরফে সওয়ালে জানানো হয়নি, বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের বেঞ্চে বিষয়টির আগেই নিষ্পত্তি হয়েছে। ফলে এই নিয়ে নতুন মামলা গ্রহণযোগ্য নয়। কিন্তু রাজ্যের আবেদনে কর্ণপাত করেনি হাইকোর্ট।

 

বন্ধ করুন