বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মাস্ক না পরে সফর করলে জরিমানা, রেলের নয়া নির্দেশিকা ঘিরে তুঙ্গে বিতর্ক
মাস্ক ছাড়া ট্রেনে উঠলে জরিমানার মেয়াদ আরও ছ'মাস বাড়ানো হল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
মাস্ক ছাড়া ট্রেনে উঠলে জরিমানার মেয়াদ আরও ছ'মাস বাড়ানো হল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

মাস্ক না পরে সফর করলে জরিমানা, রেলের নয়া নির্দেশিকা ঘিরে তুঙ্গে বিতর্ক

  • কিন্তু সম্প্রতি মাস্ক না পরার ক্ষেত্রে জরিমানা আদায়ে জোর দিতে পূর্ব রেল একটি নির্দেশিকা জারি করেছে। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

ট্রেন সফরে মাস্ক না পরলে কী জরিমানা দিতে হবে?‌ এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে যাত্রীদের মধ্যে। কারণ ট্রেনে সফরের সময় মাস্ক না পরলে জরিমানার কথা আগেই ঘোষণা করেছিল রেল কর্তৃপক্ষ। এমনকী মাস্ক না পরলে জরিমানা আদায়ের মেয়াদ সেপ্টেম্বর মাসে ফের ৬ মাস বাড়িয়েছে রেল। করোনাভাইরাস আবহে এই পদক্ষেপ করা হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি মাস্ক না পরার ক্ষেত্রে জরিমানা আদায়ে জোর দিতে পূর্ব রেল একটি নির্দেশিকা জারি করেছে। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

কী সেই নির্দেশিকা?‌ রেল সূত্রে খবর, গত ১৮ অক্টোবর পূর্ব রেলের সিনিয়র ডিভিশনাল কমার্শিয়াল ম্যানেজারের জারি করা ওই নির্দেশিকায় টিকিট পরীক্ষকদের মাস্কহীন যাত্রীদের কাছ থেকে রোজকার জরিমানা আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়েছে। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রেলের টিটিই চলন্ত ট্রেনে রোজ ন্যূনতম চারজন মাস্কহীন যাত্রীর কাছ থেকে জরিমানা আদায় করতে হবে। আর স্টেশনে থাকা টিকিট পরীক্ষকদের ক্ষেত্রে সেই সংখ্যাটি হল দুই।

কিন্তু কেন এমন নির্দেশিকা?‌ অনেকেই বলছেন, এই নির্দেশিকার ফলে টিকিট পরীক্ষকদের যথেচ্ছ জরিমানা করার প্রবণতা বাড়বে। আবার অনেকে বলছেন, আয় বাড়াতেই এই পথ নিচ্ছে রেল। মাস্ক না পরলে ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া রয়েছে। এই বিষয়ে পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক একলব্য চক্রবর্তীর সাফাই, ‘এমন নির্দেশিকার কথা জানা নেই।’

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বিশেষ ট্রেন চলছে। তাতে ভিড়ও হচ্ছে। অনেককেই মাস্ক না পরে সফর করতে দেখা যাচ্ছে। স্টেশন প্ল্যাটফর্মে একই ছবি দেখা যাচ্ছে। এতে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে মনে করছেন রেলকর্তারা। তাই এই নির্দেশিকা জারি করে যাত্রীদের সচেতন করতে চাইছে রেল বলে মনে করা হচ্ছে। তবে ওই নির্দেশিকা নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

বন্ধ করুন