বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দুয়ারে রেশন: সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে ডিলাররা
ফাইল ছবি। (HT_PRINT)
ফাইল ছবি। (HT_PRINT)

দুয়ারে রেশন: সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে ডিলাররা

  • বুধবার সিঙ্গল বেঞ্চে এই মামলার শুনানিতে রেশন ডিলারদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, বাড়িবাড়ি গিয়ে রেশন বিলি কেন্দ্রের খাদ্যসুরক্ষা আইনবিরুদ্ধ। রেশন নিতে উপভোক্তাকে আসতে হবে রেশন দোকানে।

রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পকে চ্যালেঞ্জ করে ডিলারদের করা মামলা বুধবারই খারিজ করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ। তার পর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হল ডিলারদের সংগঠন। সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা। মামলাটি গ্রহণ করলেও বেশি গুরুত্ব দেয়নি আদালত।

বিচারপতি অমৃতা সিনহার রায়কে চ্যালেঞ্জ করে বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে আপিল মামলা দায়ের করে রেশন ডিলারদের সংগঠন। তাতে সিঙ্গলবেঞ্চের রায়ে ডিলারদের বক্তব্য সঠিকভাবে শোনা হয়নি বলে দাবি করা হয়েছে। মামলাটি গ্রহণ করেছে আদালত। তবে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে না হওয়ায় এখনো শুনানির দিনক্ষণ জানায়নি হাইকোর্ট।

বুধবার সিঙ্গল বেঞ্চে এই মামলার শুনানিতে রেশন ডিলারদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, বাড়িবাড়ি গিয়ে রেশন বিলি কেন্দ্রের খাদ্যসুরক্ষা আইনবিরুদ্ধ। রেশন নিতে উপভোক্তাকে আসতে হবে রেশন দোকানে। সেই নিয়ম না মেনে বাড়িতে রেশন পৌঁছে দিতে বলছে সরকার।

তাদের আরও দাবি, ডিলারশিপ নেওয়ার সময় চুক্তিতে তাদের বাড়িতে রেশন পৌঁছতে হবে এমন কোনও শর্ত ছিল না। এখন তা যোগ করতে চাইছে সরকার। তবে লোকবল ও পরিকাঠামো না থাকায় তা ডিলারদের পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। এই বাবদ খরচও বহন করতে চাইছে না রাজ্য।

রাজ্যের তরফে পালটা সওয়ালে বলা হয়, এই প্রকল্প পরীক্ষামূলকভাবে সেপ্টেম্বর মাসের জন্য চালু হয়েছে। তাই কোনও বিজ্ঞপ্তিও জারি হয়নি। প্রকল্পে মানুষ উৎসাহ প্রদর্শন করলে আইন সংশোধন করে বিজ্ঞপ্তি জারি হবে। এর পরই বিষটিতে হস্তক্ষেপ করতে অস্বীকার করেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা। তিনি বলেন, যেতে এটি পরীক্ষামূল প্রকল্প ও তার বিজ্ঞপ্তিই জারি হয়নি ফলে কীসের ভিত্তিতে বিচার করবে আদালত? বিজ্ঞপ্তি জারির পর ফের এবিষয়ে তর্ক হতে পারে বলে জানান তিনি।

 

বন্ধ করুন