বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'ভিক্টোরিয়ায় নেতাজি-ক্ষুদিরামদের কাহিনি তুলে ধরা উচিত', বললেন মোদী
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

'ভিক্টোরিয়ায় নেতাজি-ক্ষুদিরামদের কাহিনি তুলে ধরা উচিত', বললেন মোদী

মোদীর দাবি, ঐতিহাসিকরা ভারতের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা এড়িয়ে গিয়েছেন।

বক্তৃতার বারেবারে উঠে এল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু, শহিদ ক্ষুদিরাম, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাম। স্বাধীনতা সংগ্রামে বাঙালিদের অবদানেরও ভূয়সী প্রশংসা করলেন। তুমুল বিক্ষোভের আবহে কলকাতায় এসে এভাবেই বাঙালি ভাবাবেগকে হাতিয়ার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন : বেলুড়ে পৌঁছে খোশমেজাজে নমো, সন্ন্যাসিদের সঙ্গে মাতলেন আড্ডায়

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের একটি গ্যালারিতে বাঙালি বিপ্লবীদের কাহিনি তুলে ধরার কাজ চলছে বলে জানালেন মোদী। তাঁর কথায়, 'ভিক্টোরিয়ার পাঁচটি গ্যালারির মধ্যে দুটি দীর্ঘদিন বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। এটা ঠিক নয়। সেগুলি চালু করার কাজ চলছে। স্বাধীনতা সংগ্রামে বাংলার অবদানের কাহিনি তুলে ধরা উচিত। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু, অরবিন্দ ঘোষ ও শহিদ ক্ষুদিরামের মতো নেতাদের জায়গা পাওয়া উচিত।'

আরও পড়ুন : শহরে পা রাখতে বাড়ল বিক্ষোভের মাত্রা, উঠল 'গো ব্যাক মোদী' স্লোগান

মোদীর দাবি, ঐতিহাসিকরা ভারতের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা এড়িয়ে গিয়েছেন। ওল্ড কারেন্সি বিল্ডিংয়ে মোদী বলেন, 'ব্রিটিশ আমল ও স্বাধীনতার পর দেশের ইতিহাস লেখার সময় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে।'

আরও পড়ুন : 'ভিক্টোরিয়ায় নেতাজি-ক্ষুদিরামদের কাহিনি তুলে ধরা উচিত', বললেন মোদী

পাশাপাশি, নাম না করে মুঘল সাম্রাজ্যের প্রসঙ্গও টেনে আনেন মোদী।তিনি বলেন, '১৯০৩ সালে গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর লেখেন যে, পরীক্ষার আগে আমরা যা পড়ি, তা ভারতের ইতিহাস নয়। কেউ কেউ বাইরে থেকে এসেছিলেন। ছেলে বাবাকে খুন করেছিলেন। ভাইকে খুন করেছিলেন ভাই। এটা ভারতের ইতিহাস নয়।'

আরও পড়ুন : ভিডিয়ো : হাওড়া ব্রিজের সাউন্ড-লাইট শো উদ্বোধন মোদীর


বন্ধ করুন