বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গাড়ি উলটে রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ল লুব্রিক্যান্ট, একের পর এক উলটে গেল বাইক
দুর্ঘটনার প্রতীকী ছবি।

গাড়ি উলটে রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ল লুব্রিক্যান্ট, একের পর এক উলটে গেল বাইক

  • সকাল সকাল ব্যস্ততম রাস্তায় এরকম দুর্ঘটনার জেরে দীর্ঘক্ষণ ব্যাহত হল যান চলাচল।

ফের পথ দুর্ঘটনা কলকাতায়। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে গেল পণ্যবাহী গাড়ি। দুর্ঘটনাগ্রস্ত গাড়ি থেকে রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ল লুব্রিক্যান্ট। তার জেরে একের পর এক রাস্তায় উলটে গেল বাইক। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাতটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে পিটিএস এবং ডিএল খান রোডের মাঝামাঝি জায়গায়। সকাল সকাল ব্যস্ততম রাস্তায় এরকম দুর্ঘটনার জেরে দীর্ঘক্ষণ ব্যাহত হল যান চলাচল। শেষে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক সিগন্যালের মাধ্যমে রাস্তায় চলাচল করা গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ করল ট্রাফিক পুলিশ।

পুলিশ সূত্রের খবর, পণ্যবাহী গাড়িটি এদিন দ্রুতগতিতে যাচ্ছিল। সেই সময় ডি এল খান রোডের কাছে আসা মাত্রই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উলটে যায়। দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে গাড়িতে থাকা লুব্রিক্যান্ট রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ে পিচ্ছিল হয়ে যায়। তবে রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটলো গন্তব্যস্থলে পৌঁছানোর ব্যস্ততায় পিচ্ছিল রাস্তা পেরিয়ে যাচ্ছিলেন বহু বাইক আরোহী। তখনই বাইকের চাকা রাস্তায় পিছলে যাওয়ার ফলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যান দুজন বাইক আরোহী।

খবর পাওয়ার পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় স্থানীয় থানার পুলিশ এবং ট্রাফিক পুলিশ। দুর্ঘটনায় রাস্তার অবস্থা খারাপ দেখে তা পরিষ্কার করার জন্য খবর দেওয়া হয় কলকাতা পুরসভায়। পরে পুরসভার জলের গাড়ি এসে রাস্তায় পরিষ্কার করে। এদিকে, রাস্তা পরিষ্কার হওয়া অবধি সিগনালিংয়ের মাধ্যমে গাড়ির গতি শ্লথ করে দেওয়া হয়। সাধারণত এই রাস্তাদিয়ে বেহালা থেকে হাওড়া বা ধর্মতলা যার জন্য অনেক গাড়ি যাতায়াত করে। এই অবস্থায় গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ করার ফলে রাস্তায় বেশ কিছুক্ষণ যানজট দেখা দেয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত গাড়িচালককে ভর্তি করা হয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক না হলেও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় তিনি চোট পেয়েছেন।

বন্ধ করুন