বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Byron Biswas: ‘‌আজ আমি একা, সংখ্যাটা দ্রুত ১০০ হবে’‌, বিধানসভায় প্রথম পা রেখেই দাবি বাইরনের

Byron Biswas: ‘‌আজ আমি একা, সংখ্যাটা দ্রুত ১০০ হবে’‌, বিধানসভায় প্রথম পা রেখেই দাবি বাইরনের

বিধানসভায় এলেন বাইরন বিশ্বাস।

বাইরন বিশ্বাস আজই প্রথম বিধানসভায় পা রাখলেন। তাঁকে সঙ্গে করে বিধানসভায় এসেছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের দুই প্রবীণ নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক অসিত মিত্র এবং নেপাল মাহাত। স্বাধীনতার পর প্রথম, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাম–কংগ্রেস শূন্য হয়ে গিয়েছিল। বাইরনের জয়ের পর পাঁচবছর কংগ্রেস শূন্য থাকছে না বিধানসভায়।

সাগরদিঘি উপনির্বাচনে জেতার পর আজ, শনিবার প্রথম বিধানসভায় এলেন বাইরন বিশ্বাস। বাম–কংগ্রেস জোটের জয়ী প্রতিনিধি হিসাবে বিধানসভায় এসে অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন। সেখানে কিছুক্ষণ আলোচনার পর তিনি বেরিয়ে আসেন। সাগরদিঘিতে তৃণমূল কংগ্রেসের নৌকা ডুবিয়েছেন বাইরন বিশ্বাস। তবে আবার তিনিই এখন শিবরাত্রির সলতের মতো বিধানসভায় কংগ্রেস বিধায়ক বলতেও একমাত্র সদস্য।

শপথ নিয়ে কী বললেন বাইরন?‌ এদিন এসে তিনি অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সরাসরি আগে দেখা করেন। তারপর বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘‌আজকে প্রথমবার বিধানসভায় এলাম। আমার সঙ্গে স্পিকারের কথা হলো। উনি বললেন আমার শপথের ব্যাপারে রাজভবন থেকে কোন মেসেজ বা চিঠি আসেনি। আসলে আমাকে জানাবেন। খুব ভাল অনুভূতি। খুব ভাল লাগছে আমার। আমি যেসব প্রতিশ্রুতিগুলি দিয়েছিলাম জনসাধারণকে সেই সব প্রতিশ্রুতির দাবি রাখব বিধানসভায়। সব কাজই হবে। আশা করি, আমাকে কাজ করতে সাপোর্ট করবে সরকার।’‌

বিধানসভায় তো আপনি একা। পারবেন তো?‌ জবাবে বাম–কংগ্রেসের জোটের প্রতিনিধি বলেন, ‘‌আজকে হয়তো আমি একা। সংখ্যাটা খুব তাড়াতাড়ি ১০০ হবে।’‌ কেমন করে হবে?‌ বিধায়ক কিনে?‌ উত্তরে সাগরদিঘির বিধায়ক বলেন, ‘‌কিনব কেন? মানুষ পরিবর্তন চাইছে, কংগ্রেসকে চাইছে। স্বচ্ছ ভোট হলে অনেক আসন আমাদের বাড়বে।’‌ সাগরদিঘি উপনির্বাচনে জেতার পর বাইরন বলেছিলেন, ‘তৃণমূল আমায় কিনতে পারবে না। আমি তৃণমূলকে কিনে নেব।’‌

আর কী দেখা গেল?‌ বাইরন বিশ্বাস আজই প্রথম বিধানসভায় পা রাখলেন। তাঁকে সঙ্গে করে বিধানসভায় এসেছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের দুই প্রবীণ নেতা তথা প্রাক্তন বিধায়ক অসিত মিত্র এবং নেপাল মাহাত। স্বাধীনতার পর প্রথম, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাম–কংগ্রেস শূন্য হয়ে গিয়েছিল। বাইরনের জয়ের পর পাঁচবছর কংগ্রেস শূন্য থাকছে না বিধানসভায়। আইএসএফের বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকীও বাম–কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে বিধানসভায় এসেছেন। শুধু সিপিএমের কোনও প্রার্থী এখনও নেই। বাম–কংগ্রেস জোট প্রার্থী হিসাবেই সাগরদিঘির ৫০ হাজারের হারা আসন ২৩ হাজার ভোটে জিতেছেন বাইরন। তাই তাঁর আত্মবিশ্বাস, একা বিধানসভায় এসে শনিবার ১০০ আসনের স্বপ্ন দেখাতে চাইলেন বাইরন।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মেষ,বৃষ, মিথুন, কর্কটের মধ্যে আজ কোন কোন রাশি লাকি? জ্যোতিষমত দেখে নিন ৪ মার্চের সোমবার ১৭ জেলায় হবে বৃষ্টি, কয়েকটিতে ৫০ কিমিতে ঝড়! কতদিন বর্ষণ চলবে রাজ্যে? ২-২ থেকে শেষ মুহূর্তের গোলে রুদ্ধশ্বাস জয়, ISL-এ খেলার পথে আরও এক বাড়াল মহমেডান তৃণমূলে চলে আসুন! বঞ্চিতদের 'ভগবান' বিচারপতিকে আহ্বান ব্রাত্য বসুর প্রেম টেকে না, বলিউডেও হিট পায়নি এই নেপো কিড, দারুণ করে মারামারি! বলুন তো কে? ওড়িশার হারে সোনায় সোহাগা মোহনবাগানের, চাপে ইস্টবেঙ্গল- রইল ISL-র পয়েন্ট টেবিল WPL 2024: মেগের ব্যাটে GG-কে ২৩ রানে হারিয়ে MI-কে টপকে লিগ টেবলের শীর্ষে উঠল DC এবারও আশাহত বাংলা, শুভদীপকে হারিয়ে কানপুরের বৈভব পেল ইন্ডিয়ান আইডলের ট্রফি সুখী দাম্পত্যের টিপস দিলেন দুবাইয়ের কোটিপতির স্ত্রী! বরের নির্দেশে কী কী করেন? ভারতের প্রথম মহিলা স্নাইপার হলেন বিএসএফের সুমন কুমারী, দেশের গর্ব

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.