বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > CBI-এর ডাকে ফের নিজাম প্যালেসে সায়গল হোসেন, ৫ ঘণ্টা ধরে চলছে জেরা
সায়গল হোসেন। ফাইল ছবি

CBI-এর ডাকে ফের নিজাম প্যালেসে সায়গল হোসেন, ৫ ঘণ্টা ধরে চলছে জেরা

  • গরুপাচারকাণ্ডের তদন্তে দিন কয়েক আগে দুর্গাপুরে সিবিআইয়ের ক্যাম্প অফিসে জেরার মুখোমুখি হয়েছিলেন সায়গল। চলতি সপ্তাহেই ২ দিন ধরে মুর্শিদাবাদের ডোমকলে তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালান গোয়েন্দারা।

গরু ও কয়লাপাচারকাণ্ডে অনুব্রত মণ্ডলের দেহরক্ষী সায়গল হোসেনকে জেরা করছেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা। এই নিয়ে পঞ্চম দফা জেরার মুখোমুখি হলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২.৩০ মিনিট নাগাদ নিজাম প্যালেসে হাজির হন সায়গল। সঙ্গে ছিলেন তাঁর আইনজীবী। নিজাম প্যালেসে পৌঁছে সোজা চোদ্দ তলায় দুর্নীতিদমন শাখার দফতরে চলে যান তিনি। সেই থেকে তাঁর জেরা চলছে।

গরুপাচারকাণ্ডের তদন্তে দিন কয়েক আগে দুর্গাপুরে সিবিআইয়ের ক্যাম্প অফিসে জেরার মুখোমুখি হয়েছিলেন সায়গল। চলতি সপ্তাহেই ২ দিন ধরে মুর্শিদাবাদের ডোমকলে তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালান গোয়েন্দারা। পেশায় দেহরক্ষী সায়গল কী করে বিপুল সম্পত্তির মালিক হলেন তা বোঝার চেষ্টা করছেন গোয়েন্দারা। বীরভূম, ডোমকল ও কলকাতায় তাঁর যে সম্পত্তি রয়েছে তার আয়ের উৎস খুঁজছে সিবিআই। সঙ্গে গরুপাচারের টাকা কোথায় কোথায় ভাগ হয়েছে তাও জানার চেষ্টা করছেন তাঁরা।

অনুব্রত মণ্ডলের বিশ্বস্ত অনুচর সায়গল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে সিবিআইয়ের নজরে রয়েছে। ছায়াসঙ্গী সায়গলের ফোন থেকেই যাবতীয় কথোপকথন সারতেন অনুব্রত। গরু ও কয়লাপাচারের যাবতীয় লেনদেনের সাক্ষীও সায়গল বলে মনে করছেন গোয়েন্দারা। একাধিকবার সিবিআই জেরার মুখে পড়লেও এখনো সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেননি সায়গল। তাঁকে জেরা করে অনুব্রতর বিরুদ্ধে আরও তথ্যপ্রমাণ জোগাড়ের চেষ্টা চালাচ্ছেন গোয়েন্দারা।

 

বন্ধ করুন