বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বড়সড় ধাক্কা, কলকাতা থেকে কাঁচামাল বিভাগ গুটিয়েই নিচ্ছে সেল, বদলি কর্মীদের
বড়সড় ধাক্কা, কলকাতা থেকে কাঁচামাল বিভাগ গুটিয়েই নিচ্ছে সেল
বড়সড় ধাক্কা, কলকাতা থেকে কাঁচামাল বিভাগ গুটিয়েই নিচ্ছে সেল

বড়সড় ধাক্কা, কলকাতা থেকে কাঁচামাল বিভাগ গুটিয়েই নিচ্ছে সেল, বদলি কর্মীদের

কর্মরত ১৯০ জন স্থায়ী কর্মীকে অন্যত্র বদলি করে বিভাগটি তুলেই ফেলছে সেল।

রাজ্যের ইস্পাত সাম্রাজ্যে বড়সড় ধাক্কা। কলকাতার থেকে কাঁচামাল সরবরাহ বিভাগ (আরএমডি)‌ গুটিয়েই নিচ্ছে সেল। ফলে, রাজ্যে সেলের তিনটি ইস্পাত কারখানার কাঁচামাল সরবরাহের ক্ষেত্রে প্রবল সমস্যার মুখে পড়তে হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

রাজ্যের তীব্র আপত্তির তোয়াক্কা না করেই বোকারো ও রাউরকেল্লায় বিভাগটি সরিয়ে নিয়ে যাওযার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত এই সংস্থা। কর্মরত ১৯০ জন স্থায়ী কর্মীকে অন্যত্র বদলি করে বিভাগটি তুলেই ফেলছে সেল। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই কলকাতার দফতরের স্থায়ী কর্মীদের বোকারো ও রাউরকেল্লায় বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া একাংশ কর্মীকে ঝাড়খণ্ডের তিরুবুরুর লৌহ আকরিক খনিতেও বদলি করা হয়েছে। এতে রাজ্যের সেলের তিনটি ইস্পাত কারখানা দুর্গাপুর ইস্পাত, অ্যালয় স্টিল ও ইস্কোর কাঁচামাল সরবরাহের ক্ষেত্রে ব্যাপক ধাক্কা খাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ জুন সেলের দিল্লির সদর দফতর থেকে নির্দেশ জারি করা হয়। সেখানে কলকাতার বিভাগটি সরিয়ে বোকারো ও রাউরকেল্লায় নিয়ে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়।

সেলের সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় সেলের কর্মী সংগঠন আরএমডি স্টাফ অ্যাসোসিয়েশন। গত শুক্রবার মামলার শুনানিতে সেলের নির্দেশের উপর কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি আদালত। তারপরেই সোমবার কর্মী বদলির সিদ্ধান্ত নেয় সেল। সেলের বক্তব্য, নির্দেশে বলা হয়েছে, তাদের যে সমস্ত রাজ্যে লৌহ আকরিক খনি, কয়লা খনি, ফ্লাক্স মাইন রয়েছে, সেখানে সেলের দফতর থাকতে হবে। সেক্ষেত্রে সংগঠনের প্রশ্ন, এরাজ্যে যেখানে সেলের তিনটি কারখানা রয়েছে, সেখানে রাজ্যের কয়লা খনিগুলিকে কোন যুক্তিতে ঝাড়খণ্ডের বোকারো কারখানার সঙ্গে যুক্ত করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন