বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আদালত অবমাননার নোটিশ স্কুল সার্ভিস কমিশনে, নিয়োগপত্র পেলেন চাকরিপ্রার্থীরা
স্কুল সার্ভিস কমিশন
স্কুল সার্ভিস কমিশন

আদালত অবমাননার নোটিশ স্কুল সার্ভিস কমিশনে, নিয়োগপত্র পেলেন চাকরিপ্রার্থীরা

  • সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালতের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়, ওই প্রশ্নের জন্য বরাদ্দ নম্বর সব চাকরিপ্রার্থীকে দিতে হবে।

‌আদালত অবমাননার নোটিশ পাওয়ার পরই এবার নড়েচড়ে বসল স্কুল সার্ভিস কমিশন। চাকরিপ্রার্থীদের বাড়িতেই পৌঁছে গেল নিয়োগপত্র। এখন চাকরিতে যোগদানের অপেক্ষায় রয়েছেন তাঁরা।

২০১৬ সালে নবম ও দশম শ্রেণির ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় যে উত্তরপত্র প্রকাশ করেছিল স্কুল সার্ভিস কমিশন, তাতে একটি প্রশ্নের উত্তর ভুল ছিল। কিন্তু এসএসসি কর্তৃপক্ষ সেই ভুল উত্তরের কথা স্বীকার করেনি। ২০১৯ সালে এসএসসির বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হন ধিরাজ সরকার, অনিতা বিশ্বাস সহ ৫ জন চাকরিপ্রার্থী। মামলাকারীদের তরফে আইনজীবী আশিস কুমার চৌধুরী আদালতে দাঁড়িয়ে প্রমাণ করেন, সেই প্রশ্নের উত্তর সত্যিই ভুল ছিল। এরপর সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালতের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়, ওই প্রশ্নের জন্য বরাদ্দ নম্বর সব চাকরিপ্রার্থীকে দিতে হবে। নম্বর বাড়ার ফলে যদি কারো চাকরিতে সুযোগ হয়, তাহলে তাঁদের নিতে হবে।

কিন্তু আদালতের এই নির্দেশ থাকা সত্বেও চার মাস কেটে যায়। চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগপত্র দেওয়া হয় না। এরপরই মামলাকারীর আইনজীবী আদালত অবমাননার নোটিশ নিয়ে হাজির হতেই কমিশনের টনক নড়ে। সঙ্গে সঙ্গে চাকরিপ্রার্থীদের বাড়িতে নিয়োগপত্র পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। এর আগে উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ সংক্রান্ত ব্যাপারে আদালতে গিয়ে মুখ পুড়েছিল স্কুল সার্ভিস কমিশনের। ফের যাতে আদালতের কাছে প্রশ্নের মুখে না পড়তে হয়, তাই আগেভাগেই সতর্ক হল কমিশন।

বন্ধ করুন