বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Sector V: সেক্টর ফাইভে থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে চলছিল কল সেন্টারের নামে প্রতারণা চক্র
প্রতীকি ছবি।

Sector V: সেক্টর ফাইভে থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে চলছিল কল সেন্টারের নামে প্রতারণা চক্র

  • সোমবার রাতে কলেজ মোড়ের ওই বহুতলে হানা দেন ইলেক্ট্রনিক কমপ্লেক্স থানার আধিকারিকরা। তখনও রমরমিয়ে চলছে সেই কল সেন্টার। ভিতর থেকে ১৬ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

কলকাতা লাগোয়া বিধাননগরের সেক্টর ফাইভে ফের ধরা পড়ল কল সেন্টারের আড়ালে প্রতারণাচক্র। সোমবার রাতে বিধাননগরের কলেজ মোড় এলাকায় কল সেন্টারটিতে হানা দেয় ইলেক্ট্রনিক কমপ্লেক্স থানার পুলিশ। কল সেন্টার থেকে ১৬ জন যুবক যুবতীকে গ্রেফতার করে তারা। থানা থেকে কয়েকশ মিটারের মধ্যে কী করে প্রতারকরা কল সেন্টার খোলার সাহস পেল উঠছে সেই প্রশ্ন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিদেশি নাগরিকদের প্রতারণা করা হতো ওই কল সেন্টার থেকে। ফোন করে তাদের বলা হত, আপনাদের কম্পিউটারে ভাইরাস ঢুকেছে। আমরা মাইক্রোসফটের লোক, তাই আমরা তার খবর পেয়েছি। আপনি কয়েকটি সহজ ধাপে ভাইরাস মুছে ফেলতে পারেন। সেজন্য খরচ করতে হবে কিছু টাকা। এর পর টাকা নিয়ে যোগাযোগ বন্ধ করে দিত প্রতারকরা।

সোমবার রাতে কলেজ মোড়ের ওই বহুতলে হানা দেন ইলেক্ট্রনিক কমপ্লেক্স থানার আধিকারিকরা। তখনও রমরমিয়ে চলছে সেই কল সেন্টার। ভিতর থেকে ১৬ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মঙ্গলবার তাদের বিধাননগর মহকুমা আদালতে চালান করা হয়েছে।

আইনজ্ঞরা বলছেন, বারবার সেক্টর ফাইভ ও নিউ টাউনে কল সেন্টারের নামে প্রতারণা চক্র ধরা পড়ার খবর উদ্বেগজনক। এই চক্রে জড়িতরা প্রায় প্রত্যেকেই উচ্চশিক্ষিত। কিন্তু সহজে পয়সা রোজগারের আশায় তারা এই চক্রে জড়িয়ে পড়েন। আইনে কড়া সাজার ব্যবস্থা না থাকায় ধরা পড়ার কয়েকদিন বাদেই ছাড়া পেয়ে যায় অভিযুক্তরা। তাদের বিরুদ্ধে পুলিশে মামলা থাকায় অন্য কোনও সংস্থা তাদের চাকরি দিতে চায় না। এর ফলে ফের প্রতারণাচক্রে জড়িয়ে পড়ে তারা।

 

 

বন্ধ করুন