বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নারী কল্যাণে আলাদা বাজেট, বড় পদক্ষেপ নিতে পারে মমতার সরকার

নারী কল্যাণে আলাদা বাজেট, বড় পদক্ষেপ নিতে পারে মমতার সরকার

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফেসবুক

পঞ্চায়েত ভোটের আগে কার্যত মাস্টারস্ট্রোক রাজ্য সরকারের। সূত্রের খবর, এবার নারীদের কল্যাণের জন্য আলাদা বাজেট বরাদ্দ হতে পারে।

সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তারপরেই লোকসভা ভোট। আর তার আগে এবার রাজ্য বাজেটে মোক্ষম পদক্ষেপ নিতে পারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। নারী কল্যাণে এবার আলাদা বাজেট হবে। অর্থাৎ নারীদের কল্যাণের উপর একেবারে পৃথকভাবে ফোকাস করবে রাজ্য সরকার। সূত্রের খবর, আগামী অর্থবর্ষ থেকেই এই ঐতিহাসিক পদক্ষেপ কার্যকরী হবে। বলা হচ্ছে মহিলাদের ক্ষমতায়ন ও সার্বিক উন্নয়নে প্রথম থেকে বিশেষ নজর দিয়ে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই নিরিখেই এবার নারীদের জন্য় আলাদা বাজেট। কেমন হবে এই নারী কল্যাণে আলাদা বাজেট?

সূত্রের খবর, ২০২৩-২৪ অর্থবর্ষ থেকেই কার্যকর হবে এই নয়া নিয়ম। আগামী অর্থবর্ষের বাজেট প্রস্তাবেই পৃথকভাবে নারী কল্যাণ খাতে বরাদ্দ দেখানো হবে। সেক্ষেত্রে নারীদের জন্য বিশেষ প্রকল্প, নারীদের জন্য় বিশেষ আর্থিক সহায়তার উপর জোর দেওয়া হবে রাজ্য বাজেটে। কিন্তু কেন এই উদ্যোগ?

রাজনৈতিক মহলের মতে, লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুফল একেবারে হাতে নাতে পেয়েছে শাসকদল। সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তার আগে একের পর এক দুর্নীতির খবর সামনে আসছে। আর তার সঙ্গেই বাড়ছে অস্বস্তি। কিন্তু তৃণমূলের কাছে মহিলা ভোট ব্যাঙ্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেক্ষেত্রে সেই ভোটব্য়াঙ্ককে অটুট রাখাটা শাসকদলের কাছে বড় চ্যালেঞ্চ। আর সেই নিরিখে দলীয়স্তরেও বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

তার পাশাপাশি সরকারিভাবেও নারীদের কল্যাণে নানা উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। আর তারই ফসল এবার অবধারিতভাবে ঘরে তুলবে শাসকদল। কার্যত নারীদের পুরোভাগে রেখেই এবার পঞ্চায়েত ভোট লড়তে চাইছে তৃণমূল। সেই কৌশলের জেরে আরও ব্যাকফুটে চলে যাবে বিরোধীরা। এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

 

 

বন্ধ করুন