বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > একের পর এক বানান ভুল বোর্ডে, শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন চালুর আগেই বিতর্কে

একের পর এক বানান ভুল বোর্ডে, শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন চালুর আগেই বিতর্কে

শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন

আর তা নিয়ে এখন শোরগোল পনে গিয়েছে। বাংলার মাটিতেই বাংলা বানান ভুল নিয়ে চর্চা তুঙ্গে উঠেছে।

খুব দ্রত শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন চালু হয়ে যাবে। পয়লা বৈশাখ থেকেই তা চালু হতে পারে। এমন সব নানা কথা ঢাকঢোল পিটিয়ে বলা হচ্ছে। কিন্তু এই স্টেশনে দেখা গেল গোড়ায় গলদ। এখানে স্টেশনগুলির যে নাম বাংলায় লেখা হয়েছে তাতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে বানান ভুল। আর তা নিয়ে এখন শোরগোল পনে গিয়েছে। বাংলার মাটিতেই বাংলা বানান ভুল নিয়ে চর্চা তুঙ্গে উঠেছে।

ঠিক কী ঘটেছে এখানে?‌ ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রোয় সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে শিয়ালদহ পর্যন্ত ট্রেন আর কিছুদিনের মধ্যেই ছুটবে। মেট্রো রেল সূত্রে এমন খবর মিলেছে। ঝাঁ চকচকে স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে। সেখানে আধুনিকতার মেলবন্ধন ঘটানো হচ্ছে। হ্যাঁ, এটা ইস্ট–ওয়েস্ট মেট্রোর শিয়ালদহ স্টেশন। যেখানে নির্দেশিকা বোর্ডে বাংলা ভাষার বানান দেখলে চোখ কপালে উঠবেই।

কেমন বানান ভুল আছে সেখানে?‌ শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশনের মূল গেট দিয়ে ঢুকে টিকিট কাউন্টারের পাশে লাগানো নির্দেশিকা বোর্ডটি। ‘সল্টলেক স্টেডিয়াম’ লেখার পরিবর্তে লেখা রয়েছে ‘সল্ট লেক স্টেডিয়ায।’ সেক্টর ফাইভকে লেখা হয়েছে ‘স্টেশান।’ এখানেই শেষ নয়। ‘প্ল্যাটফর্ম’ হয়ে গিয়েছে ‘প্যাটফর্ম’। ট্রেনের ছাদে উঠবেন না লিখতে গিয়ে লেখা হয়েছে ট্রেনের ‘ছাতে’ উঠবেন না।

এই গটনা প্রকাশ্যে আসতেই মেট্রো রেলের আধিকারিকরা মুখে কুলুপ এঁটেছেন। এই নিয়ে কেউ কোনও কথা বলতে চাইছেন না। স্পষ্ট জবাব মেলেনি। কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, স্টেশন পুরদস্তুর চালু হওয়ার আগে সব চেক করা হবে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক কলকাতা মেট্রোর অফিসার বলেন, ‘‌এখন তো স্টেশন চালু হয়নি। চালু হওয়ার সময় ভুল শুধরে নেওয়া হবে।’‌

বন্ধ করুন