বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপি-কে রুখতে মমতাকে ফোন পাওয়ারের, জানুয়ারিতে থাকতে পারেন নেত্রীর সভায়
বিজেপি-র বিরুদ্ধে একজোট হতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ালেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার।
বিজেপি-র বিরুদ্ধে একজোট হতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ালেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার।

বিজেপি-কে রুখতে মমতাকে ফোন পাওয়ারের, জানুয়ারিতে থাকতে পারেন নেত্রীর সভায়

  • জানুয়ারিতে কলকাতায় আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সভায় থাকতে পারেন শরদ পাওয়ার।

যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ধ্বংস করতে বিজেপি-র প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে একজোট হতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়ালেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। সূত্রে খবর, সম্প্রতি তিনি এই মর্মে ফোনে আলোচনা করেছেন তৃণমূল নেত্রীর সঙ্গে। জানুয়ারি মাসে কলকাতায় বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে সম্মিলিত সভা করার পরিকল্পনাও করেছেন পাওয়ার।

একই সঙ্গে কেন্দ্রের তিন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদেও ঐক্যবদ্ধ বিরোধী শক্তিকে তীব্রতর করার পরিকল্পনায় তৃণমূলের হাত ধরতে আগ্রহী এনসিপি। এর আগেই জানুয়ারিতে কলকাতায় আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সেই সুরেই গলা মেলালেন শরদ পাওয়ার।

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সফরে এসে বিক্ষোভের মুখে পড়েন বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডা। তাঁর কনভয়ে হামলার জেরে বাংলার তিন আইপিএস আধিকারিককে দিল্লিতে তলব করা হয়েছে। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে তৃণমূল। তাদের দাবি, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ভাঙার চেষ্টা করছে কেন্দ্রের শাসকদল। 

এই ইস্যুকে হাতিয়ার করে বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে বিরোধী শক্তিকে একজোট করার ডাক দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। জানুয়ারিতে মমতার সেই সভায় উপস্থিত থাকার সম্ভানা শর পাওয়ারের। থকছেন অন্যান্য আঞ্চলিক দলের নেতৃবৃন্দও।

তবে শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারই নয়, বিজেপি-কে রুখতে বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে সর্বাত্মক লড়াইয়ে নামতে উদ্যোগী হয়েছেন মমতা। লড়াইয়ে সাড়া মিলেছে অন্যান্য আঞ্চলিক নেতৃবৃন্দের। শরদ পাওয়ারের সাম্প্রতিক ফোন নেত্রীর আহ্বানে সদর্থক সাড়া বলেই মনে করছে ঘাসফুল শিবির।

বন্ধ করুন