পুলিশের কাছ থেকে মেলা চুরি যাওয়া সামগ্রীর তালিকা
পুলিশের কাছ থেকে মেলা চুরি যাওয়া সামগ্রীর তালিকা

হাজার বিশেক টাকার জিনিস চুরির তদন্তে পুলিশের বিরুদ্ধে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ

  • তালিকায় রয়েছে বেশ কিছু নির্মাণ সামগ্রী। রয়েছে কিছু ইলেক্ট্রিক কাটার ও বাথ ফিটিংস। এসবই চুরির পর কেনার অভিযোগ ছিল রাজকুমার সাউয়ের বিরুদ্ধে।

সাকুল্যে হাজার বিশেক টাকার সামগ্রী। তাই নিয়েই তদন্তে জেরে প্রাণ গেল এক ব্যবসায়ীর। সোমবার সন্ধ্যায় সিঁথি থানায় রাজকুমার সাউ নামে ওই ব্যবসায়ীর মৃত্যুর পরই উত্তেজনা ছড়ায়। পরিজনদের দাবি, মারধরের পাশাপাশি ইলেক্ট্রিক শক দেওয়া হয়েছে রাজকুমারবাবুকে। এই অভিযোগে এদিন থানা ভাঙচুর করেন মৃতের পরিজনরা। কিন্তু চুরি হওয়া সামগ্রীর যে এক্সক্লুসিভ তালিকা হিন্দুস্তান টাইমসের হাতে এসেছে তাতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, সাকুল্যে তার দাম হাজার বিশেক টাকা।

তালিকায় রয়েছে বেশ কিছু নির্মাণ সামগ্রী। রয়েছে কিছু ইলেক্ট্রিক কাটার ও বাথ ফিটিংস। এসবই চুরির পর কেনার অভিযোগ ছিল রাজকুমার সাউয়ের বিরুদ্ধে। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি থানায় গেলে শুরু হয় জিজ্ঞাসাবাদ। এর পর তাঁকে অসুস্থ অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয় আরজি কর মেডিক্যাল কলেজে। সেখানে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

পুলিশের দেওয়া চোরাই সামগ্রীর তালিকা
পুলিশের দেওয়া চোরাই সামগ্রীর তালিকা



সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিট নাগাদ রাজকুমারবাবুর মৃত্যুর খবর ছড়ায়। এর পরই থানার সামনে ভিড় করতে থাকেন তাঁর আত্মীয় বন্ধুরা। শুরু হয় বিক্ষোভ। কিছুক্ষণ পর থানায় ঢুকে ভাঙচুর করেন তাঁরা।

রাজকুমারবাবুর আত্মীয়দের দাবি সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন তিনি। থানায় পুলিশি নির্যাতনেই মৃত্যু হয়েছে তাঁর।


বন্ধ করুন