বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দমদম বিমানবন্দরে বিমানের ভিতরে সাপ!
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

দমদম বিমানবন্দরে বিমানের ভিতরে সাপ!

  • বিমানের পণ্যবাহী প্রকোষ্ঠে পণ্য বোঝাই করতে গিয়ে আঁতকে ওঠেন বিমানবন্দরের কর্মীরা। দেখেন, সেখানে রয়েছে প্রকাণ্ড এক সাপ।

দমদম বিমানবন্দরে বিমানের ভিতর থেকে উদ্ধার হল জ্যান্ত সাপ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রবল আতঙ্ক ছড়ায় যাত্রী ও বিমানকর্মীদের মধ্যে। বনদফতরকে খবর দিলে তারা সাপটিকে উদ্ধার করেন। বিমানের ভিতরে সাপ কোথা থেকে এল তা জানা যায়নি।

দমদম বিমানবন্দরে বন্যপ্রাণীর উপদ্রব নতুন নয়। আকাশে পাখি, মৌমাছি, মাটিতে শিয়ালের উপদ্রব রুখতে আগেই ব্যবস্থা করেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। এবার উপদ্রবের নতুন নাম সাপ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬.২৪ মিনিটে ছত্তিসগড়ের রাজধানী রায়পুর থেকে দমদম নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমানসংস্থা ইন্ডিগোর উড়ান। এর পর বিমানটির উড়ে যাওয়ার কথা ছিল মুম্বইয়ে। সেই মতো বিমানের পণ্যবাহী প্রকোষ্ঠে পণ্য বোঝাই করতে গিয়ে আঁতকে ওঠেন বিমানবন্দরের কর্মীরা। দেখেন, সেখানে রয়েছে প্রকাণ্ড এক সাপ। সঙ্গে সঙ্গে আতঙ্ক ছড়ায়। ততক্ষণে বিমানে উঠে পড়েছেন যাত্রীরা। নিরাপত্তার খাতিরে তাঁদের বিমান থেকে নেমে যেতে বলা হয়। খবর দেওয়া হয় বনদফতরে।

বিধাননগর বনদফতরের কর্মীরা গিয়ে সাপটিকে উদ্ধার করেন। সঙ্গে বিমানে তল্লাশি চালান তাঁরা। জীবাণুমুক্ত করা হয় বিমানটিকে। অন্য বিমানে মুম্বাই পাঠানো হয় যাত্রীদের।

কিন্তু বিমানের ভিতরে সাপ এল কোথা থেকে? বিশেষজ্ঞদের অনুমান, সাপটি আগে থেকেই বিমানের মধ্যে ছিল। অনেক সময় বিমান ব্যবহার না হলে পার্কিংয়ে রাখা হয়। সেজন্য সমস্ত বিমানসংস্থার নির্দিষ্ট জায়গা ভাড়া নেওয়া থাকে। অন্য কোনও বিমানবন্দরে বিমানটি যখন পার্কিংয়ে ছিল তখন কোনওভাবে বিমানের ভিতরে ঢুকে পড়ে সাপটি। অথবা আগের উড়ানে কোনও বস্তায় লুকিয়ে ছিল সেটি। উড়ানের সময় বেরিয়ে পড়ে। সাপ যে ভাবেই বিমানে ঢুকে থাকুক না কেন তার কুল – গোত্র জানা যায়নি।

 

বন্ধ করুন