বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দেশকে অশান্ত করতে একটা চক্রান্ত হচ্ছে, সেনাবাহিনীতে চাকরি বাড়বে: দিলীপ
দিলীপ ঘোষ। নিজস্ব চিত্র

দেশকে অশান্ত করতে একটা চক্রান্ত হচ্ছে, সেনাবাহিনীতে চাকরি বাড়বে: দিলীপ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘নূপুর শর্মার বক্তব্য হোক বা অগ্নিপথ বিরোধী আন্দোলন, দেশকে অশান্ত করার একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছে। মোদীজির বিরোধিতা করার কোনও সুযোগ নেই। তাই এবার বিজেপিশাসিত রাজ্যগুলোকে লক্ষ্য করা হয়েছে।

পরিকল্পিতভাবে দেশে অরাজকতা ছড়াতেই কখনো নূপুর শর্মা কখনো অগ্নিপথ প্রকল্পের বিরোধিতায় দেশের বিভিন্ন রাজ্যে অশান্তি পাকানো হচ্ছে। শুক্রবার মিজোরামের উদ্দেশে উড়ে যাওয়ার আগে দমদম বিমানবন্দরে এমনই বললেন বিজেপির সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, যুবকদের সফিক ভাবে বোঝালে তারা এই ধরণের বিধ্বংসী বিক্ষোভ থেকে দূরে থাকবেন।

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘নূপুর শর্মার বক্তব্য হোক বা অগ্নিপথ বিরোধী আন্দোলন, দেশকে অশান্ত করার একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছে। মোদীজির বিরোধিতা করার কোনও সুযোগ নেই। তাই এবার বিজেপিশাসিত রাজ্যগুলোকে লক্ষ্য করা হয়েছে। যে প্রকল্প আনা হয়েছে তা ঐতিহাসিক ব্যাপার। যে যুবকরা রাস্তায় নেমেছেন তারা হয়তো পুরো ব্যাপারটা বোঝেননি। বা কেউ তাদের না বুঝিয়ে উত্তেজিত করছে। তাই তারা আগুন জ্বালানো ইত্যাদি করছেন। যখন তারা বুঝতে পারবেন হয়ে যাবে’।

তাঁর আশ্বাস, ‘সেনার চাকরি বন্ধ হচ্ছে না। সেনা উঠে যাচ্ছে না। যারা চাকরি পেতেন তারা তো স্থায়ী হবেনই, এছাড়াও লক্ষ লক্ষ যুবক নতুন করে চাকরি পাবেন। জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য সব ধরণের প্রশিক্ষণ পাবেন। ২৪ – ২৫ বছর বয়সে যখন অন্যরা চাকরি খোঁজা শুরু করে তখন তারা ২০ – ২২ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে গিয়ে নতুন করে কাজ শুরু করবে। এই ব্যাপারটা যুবকদের বোঝালে তারা বুঝতে পারবেন। সেনায় চাকরির সংখ্যা বেড়ে যাবে’।

বলে রাখি, গত বুধবার সেনায় অগ্নিপথ প্রকল্পের ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় সরকার। এই প্রকল্পের অধীনে সেনায় অগ্নিবীর হিসাবে যোগ দিতে পারবেন ১৭.৫ থেকে ২১ বছর বয়সী ছেলেরা। ৪ বছরের চাকরির মেয়াদে ৩০,০০০ – ৪০,০০০ টাকা মাসিক বেতন পাবেন তারা। ৪ বছর পর অবসরকারে গচ্ছিত অর্থ হিসাবে আরও সর্বোচ্চ ১১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন তারা। তবে অবসরের পর নিজেকে অবসরপ্রাপ্ত সেনাকর্মী হিসাবে পরিচয় দিতে পারবেন না ওই যুবকরা। পাবেন না সেনাবাহিনীর অবসরকালীন কোনও সুযোগ সুবিধা।

 

বন্ধ করুন