রাকেশ দত্ত
রাকেশ দত্ত

ছেলের ঘুসিতে মায়ের মৃত্যু, ফোন করে জামাইবাবুকে বলল 'মাকে মেরে দিয়েছি'

  • মৃতার পরিজনরা জানিয়েছেন, রাকেশের সঙ্গে মৌমিতাদেবীর রোজ ঝগড়া চলত। কিন্তু রাকেশকে বকাবকি করলে আবার রাগ করতেন তিনি।

বখাটে ছেলের ঘুসিতে মৃত্যু হল মায়ের। ঘটনা কলকাতার রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার। নিহত মহিলার নাম মৌমিতা দত্ত। মাতৃহন্তা পুত্র রাকেশ দত্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, মাকে খুন করার পর নিজেই জামাইবাবুকে ফোন করে সে জানায় ‘মাকে মেরে দিয়েছি’।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বখাটে ছেলের আদর্শ উদাহরণ হতে পারে রাকেশ। পড়াশুনো করেনি। কাজকর্মও কিছু করত না সে। চাহিদা মেটাতে রোজ টাকার দাবি করত মায়ের কাছে। মা মৌমিতাদেবী পরিচারিকার কাজ করে সামান্য উপার্জন করতেন। ছেলের বায়না নিয়মিত মেটাতে পারতেন না। আর টাকা দিতে না পারলেই মাকে মারধর করত রাকেশ।

মৃতার পরিজনরা জানিয়েছেন, রাকেশের সঙ্গে মৌমিতাদেবীর রোজ ঝগড়া চলত। কিন্তু রাকেশকে বকাবকি করলে আবার রাগ করতেন তিনি। তাই কেউ বোঝাতে যেত না।

মঙ্গলবারও মৌমিতাদেবী কাজে বেরোনোর আগে টাকা চায় রাকেশ। না-দিতে পারায় মাকে লক্ষ্য করে ঘুসি চালায় সে। সেই ঘুসিতেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন মৌমিতাদেবী। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

এর পর জামাইবাবুকে ফোন করে সে বলে ‘মাকে মেরে দিয়েছি।’ তিনিই পুলিশে খবর দেন। রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ গিয়ে দেহ উদ্ধার করে। গ্রেফতার করে রাকেশকে।



বন্ধ করুন