বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা, ভিডিয়ো তুলে ব্ল্যাকমেল, অভিযুক্ত ছেলের দুই বন্ধু
মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা, ভিডিয়ো তুলে ব্ল্যাকমেল, অভিযুক্ত ছেলের দুই বন্ধু (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা, ভিডিয়ো তুলে ব্ল্যাকমেল, অভিযুক্ত ছেলের দুই বন্ধু (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

মহিলার শ্লীলতাহানির চেষ্টা, ভিডিয়ো তুলে ব্ল্যাকমেল, অভিযুক্ত ছেলের দুই বন্ধু

  • ফুলবাগান থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা মহিলা।

ঘরের মধ্যে ঢুকে অসুস্থ পঞ্চাশোর্ধ্ব মহিলাকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করার অভিযোগ উঠল তাঁর ছেলের দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, মোবাইলে ঘটনার ‌মুহূর্তের ছবি তুলে কুপ্রস্তাব দিয়ে ব্ল্যাকমেল করার অভিযোগও উঠেছে ওই দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে। কলকাতার বুকে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে ফুলবাগান থানা এলাকায়।

ফুলবাগান থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা মহিলা। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করেছে ফুলবাগান থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ৫ অগস্ট ঘটনার সময় নির্যাতিতা মহিলার ছেলে বাড়িতে ছিলেন না। জানা গিয়েছে, চোখের রেটিনার সমস্যা হওয়ায় নির্যাতিতা মহিলা ভালোভাবে চোখে দেখতে পারেন না। সেই সুযোগে তাঁর বাড়িতে হাজির হয় ছেলের দুই বন্ধু সুরজিৎ দাস ও আরও এক যুবক। তারা বাড়িতে গিয়ে ওই মহিলার কাছে প্রথমে ছেলের খোঁজ করে। তখন মহিলা জানান যে, তার ছেলে বাড়িতে নেই। অভিযোগ ওঠে, তখনই ওই দুই যুবক মহিলার শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করে। শাড়ির আঁচল ধরে টেনে খুলে দেয়। একইসঙ্গে যৌন হেনস্থা করার চেষ্টাও করা হয় বলে অভিযোগ। এমনকী ঘটনার মুহূর্তের ভিডিয়ো তুলে নেয় অভিযুক্তরা। তারপর সঙ্গমে লিপ্ত হওয়ার কুপ্রস্তাব দিতে থাকে নির্যাতিতা মহিলাকে। তা নাহলে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি পোস্ট করে দেওয়ার হুমকিও দেয় ওই দুই অভিযুক্ত।আকস্মিক এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই মহিলা। ভয়ে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন তিনি। বেগতিক বুঝে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। কিন্তু পালানোর আগে তাদের কাছে ওই ভিডিও ফুটেজ রয়ে যায়।

এই ঘটনার পরই শুরু হয় ব্ল্যাকমেল। নির্যাতিতা মহিলাকে সঙ্গমে লিপ্ত হওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে অভিযুক্ত দুই যুবক বলে অভিযোগ উঠেছে। আরও অভিযোগ, তিনি রাজি নাহলে ওই ভিডি‌য়ো ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেয় অভিযুক্তরা। দু’‌দিন ধরে চলতে থাকে ব্ল্যাকমেল। কিন্তু আতঙ্কে ওই মহিলা এই বিষয়ে ছেলেকে কিছু জানাননি। কিন্তু ঘটনাটি বাড়াবাড়ির পর্যায়ে পৌঁছে গেলে ছেলেকে সমস্ত ঘটনা খুলে বলেন নির্যাতিতা। ছেলে তাঁর মাকে আশ্বস্ত করায় ফুলবাগান থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা মহিলা। লিখিত অভিযোগ পেয়ে মামলা রুজু করে ফুলবাগান থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

বন্ধ করুন