বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গৃহবন্দি দশার প্রথম দিনে বাড়িতে সুস্থ আছেন শোভন
বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য :‌ পিটিআই (PTI)
বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য :‌ পিটিআই (PTI)

গৃহবন্দি দশার প্রথম দিনে বাড়িতে সুস্থ আছেন শোভন

  • রবিবার শোভনবাবুর ছুটি নিয়ে হাসপাতালে একপ্রস্থ নাটক হয়। বিকেলে বৈশাখীদেবী সংবাদমাধ্যমের কাছে অভিযোগ করেন, জোর করে শোভনকে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে।

হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরে গৃহবন্দি দশায় ভাল আছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তবে সদ্য দাদাকে হারিয়ে মানসিকভাবে একটু বিষণ্ণ তিনি। সোমবার এমনই জানালেন তাঁর বন্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। 

রবিবার টানটান নাটকের পর রাতে রিস্ক বন্ড সই করে গোলপার্কের বাড়ি ফেরেন শোভন। আদালতের নির্দেশ অনুসারে সেখানে গৃহবন্দি থাকতে হবে তাঁকে। সোমবার গৃহবন্দি দশার প্রথম দিনে শারীরিক কোনও সমস্যা হয়নি শোভনের। স্বাভাবিক খাওয়াদাওয়া করেছেন তিনি। তবে সম্প্রতি শোভনবাবুর দাদার প্রয়াণ হয়েছে। সেজন্য কিছুটা বিষণ্ণ কলকাতার প্রাক্তন মেয়র। 

রবিবার শোভনবাবুর ছুটি নিয়ে হাসপাতালে একপ্রস্থ নাটক হয়। বিকেলে বৈশাখীদেবী সংবাদমাধ্যমের কাছে অভিযোগ করেন, জোর করে শোভনকে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে। তিনি সুস্থ হয়ে উঠলেও কোনও চাপের মুখে তাঁকে ছুটি দিচ্ছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এর পর হাসপাতালের জানলায় দাঁড়িয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন শোভনবাবু। তিনি বলেন, মেডিক্যাল বোর্ডের সুপারিশ অনুসারে তাঁকে ছুটি দেওয়া হোক। সেজন্য তিনি রিস্ক বন্ডে সই করতেও রাজি। তার পর নিয়ম মেনে পাঠানো হোক প্রেসিডেন্সি জেলে। সেখানে আদালতের নির্দেশ মেনে তাঁকে গৃহবন্দি রাখার ব্যবস্থা হোক। 

এর পরই রাতে রিস্ক বন্ডে সই করে হাসপাতাল থেকে ছুটি পান শোভনবাবু। প্রেসিডেন্সি জেল হয়ে ফেরেন গোলপার্কের বাড়িতে। 

সোমবার বৈশাখী জানিয়েছেন, ‘শোভনবাবুর শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে বাড়িতে অক্সিজেন ও নেবুলাইজারের ব্যবস্থা করা আছে। কিন্তু সেসব এখনো প্রয়োজন পড়েনি। SSKM হাসপাতাল থেকে দেওয়া ওষুধ এখনো খাচ্ছেন তিনি। তবে তাঁর বুকে হালকা ব্যাথা রয়েছে।’

সঙ্গে বৈশাখী জানিয়েছেন, ‘আদালতের ওপরে ভরসা আছে। আশা করি দ্রুত শুনানি শেষ হবে। উনি মুক্ত হবেন।’

 

বন্ধ করুন