বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাবুলের শপথ আটকে কেন?‌ মুখ খুললেন স্পিকার, গান গাওয়া অধরা বিধায়কের
বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

বাবুলের শপথ আটকে কেন?‌ মুখ খুললেন স্পিকার, গান গাওয়া অধরা বিধায়কের

  • পরিষদীয় দফতর বাবুলের শপথের ফাইল রাজভবনে পাঠিয়েছিল। তারপর রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বিধানসভার সচিবকে চিঠি দেন। সেখানে রাজ্যপাল উল্লেখ করেন, একাধিক প্রশ্নের জবাব তিনি পাননি। বিধানসভার সচিবালয় চিঠি দিয়ে জানায়, বাবুল সুপ্রিয়র শপথ সংক্রান্ত সব কিছু ওই ফাইলে ছিল।

বালিগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়ী হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। কিন্তু এখনও তাঁর বিধায়ক হিসেবে শপথগ্রহণ হয়নি। জটিলতা তৈরি হয়েছে তা নিয়ে। এই জটিলতা কাটাতে বিধায়ক নিজেও রাজ্যপালকে টুইট করেন। পাল্টা সংবিধানের ধারা টুইট করেন রাজ্যপাল। কিন্তু এই দড়ি টানাটানির মধ্যে শপথটি হয়নি। আর এই নিয়ে আজ সোমবার রাজ্যপালের কোর্টে বল ঠেললেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

ঠিক কী বলেছেন স্পিকার?‌ এদিন বিধানসভায় রবীন্দ্রজয়ন্তী উপলক্ষ্যে অধ্যক্ষ বলেন, ‘‌বাবুলের শপথগ্রহণ কেন আটকে আছে?‌ তা রাজ্যপালই বলতে পারবেন। সহকারী অধ্যক্ষ যে শপথবাক্য পাঠ করাতে পারবেন না সেটা রাজ্যপালকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন রাজ্যপালই ঠিক করবেন, কে, কবে শপথবাক্য পাঠ করাবেন। বিষয়টা নিয়ে অযথা বিলম্ব হচ্ছে।’‌

বাবুল কেন গান গাইতে এলেন না?‌ এদিন বিধানসভায় অধ্যক্ষকে বলা হয়, আজ বাবুল সুপ্রিয় এলেন না। এলে দুটো রবীন্দ্রসঙ্গীত শোনা যেত। এই প্রসঙ্গে অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌হ্যাঁ, উনি ভাল রবীন্দ্রসঙ্গীত গান। আজ না হোক কাল তো আসবেন।’‌ এখন রাজভবন–বিধানসভার ফাইল ঠেলাঠেলিতে বাবুলের শপথ আটকে রয়েছে। তাই বাবুলের গান গাওয়া হল না বিধানসভায় রবীন্দ্রজয়ন্তীতে।

উল্লেখ্য, পরিষদীয় দফতর বাবুলের শপথের ফাইল রাজভবনে পাঠিয়েছিল। তারপর রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বিধানসভার সচিবকে চিঠি দেন। সেখানে রাজ্যপাল উল্লেখ করেন, একাধিক প্রশ্নের জবাব তিনি পাননি। বিধানসভার সচিবালয় চিঠি দিয়ে জানায়, বাবুল সুপ্রিয়র শপথ সংক্রান্ত সব কিছু ওই ফাইলে ছিল। এরপর রাজ্যপাল বাবুলের শপথের ভার ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর দেন। কিন্তু তিনি অসুস্থ তাই শপথ করাতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন রাজ্যপালকে।

বন্ধ করুন