বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিধানসভাতেও ছাপ্পা! আচার্য বিলের ভোটাভুটি নিয়ে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর
শুভেন্দু অধিকারী।

বিধানসভাতেও ছাপ্পা! আচার্য বিলের ভোটাভুটি নিয়ে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

  • তাঁর কটাক্ষ, ‘বিল পড়ে থাকবে বছরের পর বছর। মুখ্যমন্ত্রীর অবসরের বয়স হয়ে যাবে কিন্তু আচার্য হতে পারবেন না।’

মুখ্যমন্ত্রীকে রাজ্যের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য হিসাবে নিয়োগ করতে আনা বিলের ভোটাভুটিতে বিধানসভার স্পিকারের বিরুদ্ধে বেনিয়মের অভিযোগ তুললেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সোমবার বিলের বিপক্ষে ৪০টি ভোট পড়েছে বলে জানান স্পিকার। যদিও শুভেন্দুবাবুর দাবি, বিপক্ষে ৫৭টি ভোট পড়েছে। এই নিয়ে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তিনি।

এদিন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য করতে বিল পেশ করেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। প্রায় ২ ঘণ্টা আলোচনার পর হয় ভোটাভুটি। ভোটাভুটির পর স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পক্ষে ভোট পড়েছে ১৮২টি। বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৪০টি। তবে শুভেন্দু অধিকারীর দাবি বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন বিজেপির ৫৭ জন বিধায়ক।

তিনি বলেন, ‘৫৭ জন বিধায়ক বিলের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। কিন্তু স্পিকার বলছেন ৪০ জন। এখানেও ছাপ্পা। ১৭ জন বিধায়কের ভোট কোথায় গেল? আমরা বিষয়টি নিয়ে কোর্টে যাব।’

এদিন শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘ভেবেছিল বিপক্ষে কেউ ভোট দেবে না। সর্বসম্মতিক্রমে বিল পাশ হবে। সেটা হতে দেব না। বিরোধিতা নথিভুক্ত হয়েছে।’ সঙ্গে তাঁর কটাক্ষ, ‘বিল পড়ে থাকবে বছরের পর বছর। মুখ্যমন্ত্রীর অবসরের বয়স হয়ে যাবে কিন্তু আচার্য হতে পারবেন না।’

তিনি বলেন, ‘সামনেই পশ্চিমবঙ্গ দিবস। ওই দিন আমরা রাজ্যপালের কাছে যাব। রাজ্যপালের কাছে অনুরোধ করব, শিক্ষা সংবিধানে যৌথ তালিকাভুক্ত। তাই এই বিল দিল্লিতে পাঠিয়ে দিন।’

এদিন ভোটদানে অংশগ্রহণ করতে পারেননি শুভেন্দু অধিকারীসহ বহিষ্কৃত ৫ জন বিজেপি বিধায়ক।

 

বন্ধ করুন