বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > SSC Recruitment Scam: SSC 'দুর্নীতির' নথি নষ্ট হতে পারে, CRPF চেয়ে দায়ের মামলা, রাতেই শুনানি হাইকোর্টে
এসএসসি নিয়োগে দুর্নীতি মামলা নিয়ে একটি ছাত্র সংগঠনের মিছিল। (ছবি সৌজন্যে এএফপি)

SSC Recruitment Scam: SSC 'দুর্নীতির' নথি নষ্ট হতে পারে, CRPF চেয়ে দায়ের মামলা, রাতেই শুনানি হাইকোর্টে

  • SSC Recruitment Scam: স্কুল সার্ভিস কমিশনের (এসএসসি) নিয়োগে ‘দুর্নীতির’ জরুরি নথি নষ্ট করার আশঙ্কায় কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করলেন চাকরিপ্রার্থীরা। রাত ১০ টা ৩০ মিনিট থেকে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের চেম্বারে শুরু হয়েছে মামলার শুনানি। যা কার্যত নজিরবিহীন বলে মনে করছে আইনজীবী মহল।

দিনভরের চূড়ান্ত উত্তেজনায় এখনও ইতি পড়ল না। স্কুল সার্ভিস কমিশনের (এসএসসি) নিয়োগে ‘দুর্নীতির’ জরুরি নথি নষ্ট করার আশঙ্কায় কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করলেন চাকরিপ্রার্থীরা। তাঁদের দাবি, অবিলম্বে কমিশনের অফিসে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হোক। যে মামলার আর্জি ইতিমধ্যে গৃহীত হয়েছে। ইতিমধ্যে শুরু গিয়েছে শুনানি।

আরও পড়ুন: Partha Chatterjee: প্রায় ৪ ঘণ্টা পর CBI দফতর থেকে বেরোলেন পার্থ, খরচ করলেন না একটা শব্দও

বুধবার সকালে এসএসসি দুর্নীতি মামলায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ বহাল রাখে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। কমিশনের মাধ্যমে স্কুলে গ্রুপ 'সি' ও গ্রুপ ‘ডি’ কর্মী, নবম-দশম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগ-সহ সাতটি মামলায় সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চ। সেই নির্দেশ বহাল রাখা হয়। ডিভিশন বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ ছিল, এখনও পর্যন্ত কমিশনের স্বপক্ষে কোনও তথ্যপ্রমাণ নেই।

তারইমধ্যে আজ সন্ধ্যায় ইস্তফা করেন কমিশনের চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদার। নিয়োগ করা হয় নয়া চেয়ারম্যান। তারপরই তথ্যপ্রমাণ লোপাট বা নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় হাইকোর্টে দ্বারস্থ হন চাকরিপ্রার্থী। মামলা দায়েরের অনুমতি দেন প্রধান বিচারপতি পঙ্কজ শ্রীবাস্তব। রাত ১০ টা ৩০ মিনিট থেকে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের চেম্বারে শুরু হয়েছে মামলার শুনানি। যা কার্যত নজিরবিহীন বলে মনে করছে আইনজীবী মহল।

আরও পড়ুন: SSC Recruitment Scam: ‘SSC-র স্বপক্ষে এখনও কোনও প্রমাণ নেই’, নিয়োগ দুর্নীতির মামলার তদন্তে CBI: ডিভিশন বেঞ্চ

চাকরিপ্রার্থীদের কী আর্জি জানানো হয়েছে?

চাকরিপ্রার্থীদের দাবি, তথ্যপ্রমাণ লোপাট করা হতে পারে। তাই কমিশন এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কার্যালয়ের সামনে কেন্দ্রীয় বাহিনী (সিআরপিএফ) মোতায়েন করা হোক, যাতে সিবিআই ছাড়া কারও হাতে গুরুত্বপূর্ণ নথি না যায়।

বন্ধ করুন