বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কী শর্তে তৃণমূলে যোগদান? পরেশকে জেরা করে দুর্নীতির গভীরে পৌঁছনোর চেষ্টায় CBI
বৃহস্পতিবার CBI দফতরে পরেশচন্দ্র অধিকারী (PTI)

কী শর্তে তৃণমূলে যোগদান? পরেশকে জেরা করে দুর্নীতির গভীরে পৌঁছনোর চেষ্টায় CBI

  • ২০১৮ সালের ১৭ অগাস্ট তৃণমূলে নাম লেখান পরেশচন্দ্র অধিকারী। অভিযোগ, তাঁর দিন কয়েকের মধ্যেই SSC-র SLST ওয়েটিং লিস্টে সবার ওপরে চলে আসে পরেশবাবুর মেয়ে অঙ্কিতার নাম। এর কয়েকদিনের মধ্যে নিয়োগপত্রও পেয়ে যান তিনি।

SSC নিয়োগ দুর্নীতিতে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে জেরা করে দুর্নীতির গভীরে পৌঁছনোর চেষ্টা শুরু করল সিবিআই। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিবিআই দফতরে প্রথমবারের হাজিরায় তাঁর কাছে গোয়েন্দারা জানতে চান, কী শর্তে যোগদান করেছিলেন তিনি? যোগদানের আগে কার কার সঙ্গে কথা হয়েছিল তাঁর।

দীর্ঘ নাটকের পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় SSC দুর্নীতিতে CBI দফতরে হাজিরা দেন রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারী। তাঁকে প্রায় ৩ ঘণ্টা জেরা করেন গোয়েন্দারা। সিবিআই সূত্রের খবর, প্রথমদফার জেরায় গোয়েন্দারা জানতে চান, তৃণমূলে যোগদানের আগে কার কার সঙ্গে কথা হয়েছিল তাঁর? কী শর্তে তৃণমূলে যোগদান করেছিলেন তিনি? তাঁর তৃণমূলে যোগদানের সঙ্গে কি তাঁর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর স্কুলে চাকরি পাওয়ার কোনও সম্পর্ক রয়েছে? এমনকী কোন তৃণমূল নেতা তাঁর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন তাও জানতে চান গোয়েন্দারা।

২০১৮ সালের ১৭ অগাস্ট তৃণমূলে নাম লেখান পরেশচন্দ্র অধিকারী। অভিযোগ, তাঁর দিন কয়েকের মধ্যেই SSC-র SLST ওয়েটিং লিস্টে সবার ওপরে চলে আসে পরেশবাবুর মেয়ে অঙ্কিতার নাম। এর কয়েকদিনের মধ্যে নিয়োগপত্রও পেয়ে যান তিনি। যদিও মেধাতালিকায় নাম ছিল না অঙ্কিতার।

ছবি বলছে, ২০১৮ সালের ১৭ অগাস্ট তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের হাত থেকে দলের পতাকা ধরেছিলেন পরেশবাবু। বুধবার রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেন, তিনটি শর্তে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন পরেশবাবু। তার মধ্যে অন্যতম ছিল সব নিয়ম ভেঙে মেয়েকে স্কুলে চাকরি দিতে হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মধ্যস্থতায় তাঁর দাবি কার্যকর করা হয়। এছাড়া কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী করার দাবি রেখেছিলেন তিনি। দাবি ছিল, চ্যাংড়াবান্ধা উন্নয়ন পর্ষদের সভাপতি করতে হবে তাঁকে।

 

বন্ধ করুন