বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > SSC Scam Case: নির্ধারিত সময়ের আগেই নিজাম প্যালেসে পার্থ, আজ কি মন্ত্রীর থেকে ‘সদুত্তর’ পাবে CBI
সিবিআই দফতরে পার্থ চট্টোপাধ্যায় 

SSC Scam Case: নির্ধারিত সময়ের আগেই নিজাম প্যালেসে পার্থ, আজ কি মন্ত্রীর থেকে ‘সদুত্তর’ পাবে CBI

  • SSC Scam Case: আজ ১০টা ৪৫ মিনিট নাগাদই সিবিআই দফতরে পৌঁছে যান পার্থ চট্টোপাধ্যায়। যদিও তাঁর হাজিরার সময় ছিল সকাল ১১টা।

এসএসসি দুর্নীতি মামলায় আজ দ্বিতীয় দফায় সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হচ্ছেন রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এর আগেও একদিন পার্থবাবুকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। তবে সেবারে সব প্রশ্নের সদুত্তর নাকি দিতে পারেননি মন্ত্রী। তাই তাঁকে ফের আখবার আজ হাজিরা দিতে বলা হয়েছিল। সেই মতো আজ তিনি ১০টা ৪৫ মিনিট নাগাদই সিবিআই দফতরে পৌঁছে যান। যদিও তাঁর হাজিরার সময় ছিল সকাল ১১টা। 

এর আগে আজকে সকাল ৯টা নাগাদ পার্থবাবুর বাড়িতে পৌঁছেছিলেন বেশ কয়েকজন আইনজীবী। এই আবহে তাঁর হাজিরা ঘইরে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। বিভিন্ন মিডিয়া রিপোর্টে দাবি কার হয়েছিল, তিনি আজকে নিজাম প্যালেসে নাও যেতে পারেন। তবে শেষ পর্যন্ত সকাল ১০টা ২৫ মিনিট নাগাদ নিজের নাকতলার বাড়ি থেকে রওনা দেন পার্থবাবু। ১০টা ৪৫-এ তিনি পৌঁছে যান সিবিআই দফতরে। এদিন সবুজ পাঞ্জাবি পরা পার্থবাবুকে হাসিমুখেই সিবিআই দফতরে ঢুকতে দেখা যায়।

এর আগে আজকে সকাল ৯টা নাগাদ পার্থবাবুর বাড়িতে পৌঁছেছিলেন বেশ কয়েকজন আইনজীবী। এই আবহে তাঁর হাজিরা ঘইরে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। বিভিন্ন মিডিয়া রিপোর্টে দাবি কার হয়েছিল, তিনি আজকে নিজাম প্যালেসে নাও যেতে পারেন। তবে শেষ পর্যন্ত সকাল ১০টা ২৫ মিনিট নাগাদ নিজের নাকতলার বাড়ি থেকে রওনা দেন পার্থবাবু। ১০টা ৪৫-এ তিনি পৌঁছে যান সিবিআই দফতরে। এদিন সবুজ পাঞ্জাবি পরা পার্থবাবুকে হাসিমুখেই সিবিআই দফতরে ঢুকতে দেখা যায়।

এদিকে এর আগেও একবার ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়েছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু সেবার সিবিআই কর্তারা দাবি করেন, পার্থবাবুর দেওয়া তথ্য বাস্তব অভিযোগের সঙ্গে মিলছে না।‌ তাই এই দ্বিতীয়বার হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয় তাঁকে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, আজ সিবিআই পার্থবাবুকে জিজ্ঞাসা করতে পারেন- প্যানেলের মেয়াদ শেষের পরেও নিয়োগপত্র পেয়েছিলেন ১৫ জন। ওয়েটিং লিস্টেও নাম ছিল না ৭ জনের। এই ঘটনা কী করে ঘটেছিল?‌ পুনর্মূল্যায়ন ছাড়াই কীভাবে একাধিক প্রার্থীর নম্বর বৃদ্ধি হয়? ওএমআর শিট মূল্যায়নে বোর্ড মিটিং ছাড়াই সংস্থা বদল কেন? এর আগে বাগ কমিটির রিপোর্টেও এইসব প্রশ্ন তুলে জমা দেওয়া হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে।

 

বন্ধ করুন