বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > SSC scam: মেয়ের কাছে মুখ দেখাতে পারছি না-পার্থর গ্রেফতারিতে অস্বস্তিতে ঘনিষ্ঠ বাপ্পাদিত্য
কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্ত।

SSC scam: মেয়ের কাছে মুখ দেখাতে পারছি না-পার্থর গ্রেফতারিতে অস্বস্তিতে ঘনিষ্ঠ বাপ্পাদিত্য

  • তিনি জানান, ২১ শে জুলাইয়ের সমাবেশে বৃষ্টিতে ভেজার পরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তাছাড়া তাঁর বাড়িতে স্ত্রী ও মেয়ের কোভিড টেস্ট করাতে হয়েছিল। সেই কারণে তিনি উপস্থিত থাকতে পারেননি। তবে রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, পার্থর হাত ধরেই রাজনীতিতে এসেছিলেন বাপ্পাদিত্য। 

এসএসসি দুর্নীতিতে ইডির হাতে গ্রেফতার হওয়া রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের হাত ধরেই রাজনীতিতে উদয় হয়েছিল তাঁর। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে তিনি পরিচিত। পার্থর গ্রেফতারিতে এখন চরম স্বস্তিতে কলকাতা পুরসভার সেই কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্ত। পুরসভার শেষ মাসিক অধিবেশনে দেখা যায়নি বাপ্পাদিত্যকে। এই নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। যদিও এরজন্য তিনি পারিবারিক সমস্যাকে দায়ী করলেও রাজনৈতিক মহলের মতে পার্থর গ্রেফতারির পরে চরম বিড়ম্বনায় রয়েছেন কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য। এমনকি নিজের মেয়ের কাছেও তিনি মুখ দেখাতে পারছেন না বলে সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন খোদ কাউন্সিলর।

পার্থর গ্রেফতারি পর অস্বস্তির কথা স্বীকার করে নিয়ে তিনি জানান, ‘এই ঘটনায় আমি পারিবারিকভাবে স্তম্ভিত। আমার পরিবার ধাক্কা খেয়েছে। আমি মানসিকভাবে ধাক্কা খেয়েছি। মেয়ের কাছে মুখ দেখাতে লজ্জা লাগছে।’ যদিও ২২ জুলাই পুরসভার শেষ মাসিক অধিবেশনে উপস্থিত না থাকার কারণ হিসেবে তিনি জানান, ২১ শে জুলাইয়ের সমাবেশে বৃষ্টিতে ভেজার পরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তাছাড়া তাঁর বাড়িতে স্ত্রী ও মেয়ের কোভিড টেস্ট করাতে হয়েছিল। সেই কারণে তিনি উপস্থিত থাকতে পারেননি। তবে রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, পার্থর হাত ধরেই রাজনীতিতে এসেছিলেন বাপ্পাদিত্য। ফলে গোটা ঘটনায় তিনি অস্বস্তিতে রয়েছেন।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর পারিবারিক ঘনিষ্ঠতা রয়েছে বলে জানিয়েছেন কাউন্সিলর। তিনি বলেন, ‘পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দাদার সঙ্গে আমার বাবার খুব ভালো বন্ধুত্ব। ফলে আমাদের মধ্যে একটা পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে।’ যদিও পার্থর একাধিক সম্পর্কে তিনি কিছুই জানতেন না বলেই দাবি করেছেন। তবে তাঁকে কেন্দ্রীয় সংস্থা ডাকলে তিনি যেতে প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন কাউন্সিলর। তিনি বলেন, ‘এর আগে আমাকে ডাকা হয়েছিল। সেই সময় আমার আইটি রিটার্ন দেখে হেঁসেছিল ইডি এবং সিবিআই। তবে আবার ডাকলে আমি যেতে প্রস্তুত। আমি যে কোনও তদন্তের মুখোমুখি হতে প্রস্তুত।'

 

বন্ধ করুন