বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ১২ বার তৈরি হয়েছিল প্যানেল, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে উঠে এল বিস্ফোরক তথ্য

১২ বার তৈরি হয়েছিল প্যানেল, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে উঠে এল বিস্ফোরক তথ্য

কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় 

OMR শিট পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা সংস্থা জানায়, পর্ষদের দেওয়া তথ্য মেনে ২০১৭ সালে ২২০৮ জনের অতিরিক্ত প্যানেল তৈরি করেছিল তারা। ১২ বার তৈরি হয়েছিল সেই প্যানেল। সেই তথ্য পর্ষদকে জানানো হয়েছিল। একথা শুনে বিচারপতি বলেন, এটা নতুন তথ্য। এ তো কেঁচো খুড়তে কেউটে বেরিয়ে পড়ছে।

একবার দু’বার নয়, ১২ বার তৈরি করা হয়েছিল শিক্ষক নিয়োগের অতিরিক্ত প্যানেল। শুক্রবার শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানিতে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে একথা জানাল ২০১৪ টেটের OMR শিট পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা বেসরকারি সংস্থা। যা শুনে আঁতকে ওঠেন খোদ বিচারপতি।

এদিনের শুনানিতে ২০১৪ টেটের ওএমআর শিট পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা সংস্থাকে তালিকায় নম্বর বিভাজনের পদ্ধতি স্পষ্ট করতে বলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সঙ্গে সিবিআইকে তিনি প্রশ্ন করেন, কাকে কত টাকার বিনিময়ে চাকরি দেওয়া হয়েছে সেই তথ্য তালিকায় কোথায়? কে কতগুলি প্রশ্নের ভুল উত্তর দিয়েছে সেই তথ্য তালিকায় নেই কেন? মাস্টার ডেটা শিটে এই তথ্য থাকবে না? আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি। এই তালিকায় প্রার্থীদের ঠিকুজি - কুষ্টি সব রয়েছে, নেই শুধু প্রার্থীদের বাবার নাম।

এর পরই OMR শিট পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা সংস্থা জানায়, পর্ষদের দেওয়া তথ্য মেনে ২০১৭ সালে ২২০৮ জনের অতিরিক্ত প্যানেল তৈরি করেছিল তারা। ১২ বার তৈরি হয়েছিল সেই প্যানেল। সেই তথ্য পর্ষদকে জানানো হয়েছিল। একথা শুনে বিচারপতি বলেন, এটা নতুন তথ্য। এ তো কেঁচো খুড়তে কেউটে বেরিয়ে পড়ছে।

এদিনের শুনানিতে ফের একবার সিবিআইয়ের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিচারপতি। আশঙ্কা প্রকাশ করেন, বেনামি পাসপোর্ট ব্যবহার করে বিদেশে ভ্রমণ করে থাকতে পারেন নিয়োগ দুর্নীতির কুশীলবরা। এব্যাপারে সিবিআইকে অনুসন্ধানের নির্দেশ দেন তিনি। জানান, আগামী মাসে এব্যাপারে তিনি রিপোর্ট তলব করতে পারেন। একই সঙ্গে তদন্তে গতি আনতে সিবিআই আধিকারিকদের ইডির সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন তিনি।

 

বন্ধ করুন