বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দূরত্ব বিধি বজায় রাখার জন্য কলকাতা বইমেলায় স্টলের আয়তন ছোট হতে পারে
আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে কলকাতা বইমেলা। ছবি সৌজন্যে ফেসবুক

দূরত্ব বিধি বজায় রাখার জন্য কলকাতা বইমেলায় স্টলের আয়তন ছোট হতে পারে

  • কোভিড পরিস্থিতির কারণে মেলা প্রাঙ্গণের মধ্যে খোলামেলা জায়গা বাড়াতে চাইছে গিল্ড। প্রয়োজনে স্টলের আয়তন ছোট করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে সেন্ট্রাল পার্কে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা। কোভিড পরিস্থিতির জেরে এবার সম্পূর্ণভাবে সুরক্ষা বিধি মেনেই বইমেলা আয়োজনের অনুমতি দিয়েছে রাজ্য সরকার। বইমেলায় কীভাবে কোভিড বিধি মানা হবে তা নিয়ে বুক সেলার্স অ্যান্ড গিল্ডের কর্তাদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

বৈঠকে বিক্রেতাদের ক্ষেত্রে টিকার দু'টি ডোজ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অন্যদিকে, ক্রেতাদের নিয়ে সে বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হলেও তারা যাতে মেলা প্রাঙ্গণে সবসময় মাস্ক এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করেন তা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ নিয়ে সতর্কের জন্য প্রবেশ পথ থেকে শুরু করে মেলা প্রাঙ্গণের বিভিন্ন জায়গায় পোস্টার দেওয়া থাকবে।

কোভিড পরিস্থিতির কারণে মেলা প্রাঙ্গণের মধ্যে খোলামেলা জায়গা বাড়াতে চাইছে গিল্ড। প্রয়োজনে দোকানের আয়তন ছোট করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার গিল্ড কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক মুখ্যসচিবের। মেলা প্রাঙ্গণে কীভাবে করোনা বিধি বজায় রাখা যায় তা নিয়ে গিল্ডের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেন মুখ্যসচিব।

গিল্ডের তরফে জানানো হয়েছে, বইমেলায় বইপ্রেমীরা স্টলের বাইরে থেকে বই কিনতে পারবেন। তবে যারা স্টলের ভিতরে গিয়ে বই কিনতে চান তারা স্টলের ভিতরে ঢুকতে পারবেন। গিল্ড সূত্রে জানা গিয়েছে, যারা বইমেলায় আসবেন অর্থাৎ ক্রেতারা মাস্ক ছাড়া মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে পারবেন না। প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, দোকানের মাপ ছোট হলে সে ক্ষেত্রে খোলামেলা জায়গা বেশি থাকবে। আর তার ফলে দূরত্ব বিধি বজায় রাখা সম্ভব হবে। সেন্ট্রাল পার্কে ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে বইমেলা। করোনা পরিস্থিতির কারণে গতবছর আন্তর্জাতিক বইমেলা হয়নি। তাই বইমেলাকে ঘিরে স্বাভাবিকভাবেই বইপ্রেমীদের মধ্যে উন্মাদনা তৈরি হয়েছে।

বন্ধ করুন