বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হচ্ছে বিজেপির সদর দফতর, জোরদার কাজ শুরু
বিজেপি সদর দফতরে নিরাপত্তা বেষ্টনী আরও জোরদার করছে
বিজেপি সদর দফতরে নিরাপত্তা বেষ্টনী আরও জোরদার করছে

নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হচ্ছে বিজেপির সদর দফতর, জোরদার কাজ শুরু

  • এবার বিজেপি সদর দফতরে নিরাপত্তা বেষ্টনী আরও জোরদার করতে চলেছে!

চমকে গিয়েছেন বিজেপির রাজ্য নেতারা। সম্প্রতি ৬ নম্বর মুরলীধর সেন লেনে অবস্থিত বিজেপির রাজ্য দফতরের বাইরে অবস্থান–বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। এটা একেবারেই আশা করতে পারেননি বঙ্গ–বিজেপির নেতারা। তাই এবার বিজেপি সদর দফতরে নিরাপত্তা বেষ্টনী আরও জোরদার করতে চলেছে!

কেমন করা হচ্ছে নিরাপত্তা বেষ্টনী?‌ বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই মূল ফটকের সামনে একজন নিরাপত্তারক্ষী সবসময়ের জন্য মোতায়েন করা হয়েছে। হাতে দেওয়া হয়েছে মেটাল ডিটেক্টর। যে বা যাঁরা আসবে প্রত্যেককেই পরীক্ষা দিয়ে ভেতরে ঢুকতে হবে। এরপর দোতলায় যেখানে রাজ্যের নেতাদের আলাদা আলাদা ঘর ধার্য করা আছে সেখানেও কড়া প্রহরা থাকছে। সিঁড়ির একেবারে নিচে লোহার গেট বসানো হচ্ছে। যাতে যে কেউ সেখানে প্রবেশ না করতে পারে।

জানা গিয়েছে, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী যেখান দিয়ে উঠবেন তাঁর ঘরে যাওয়ার জন্য সেখানেও লোহার গেট বসানো হয়েছে। পুরো রাজ্য দফতর নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। কারণ যেভাবে হঠাৎ করে রাজ্য দফতরের সামনে বিক্ষোভে মিছিল হয় শাসকদলের নেতা–কর্মীরা তাতে আবার এমন কিছু হতে পারে বলে তাঁরা মনে করছেন।

এছাড়া বাইরে এবং ভিতরে সিসিটিভি লাগানো হচ্ছে। যাতে বাইরে কি হচ্ছে তা দেখতে পাওয়া যায়। রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের ঘর ও সংলগ্ন জায়গায় বসানো হচ্ছে সিসিটিভি। নিরাপত্তা বেষ্টনীতে মুড়ে ফেলা হচ্ছে। অ্যাপয়ন্টমেন্ট ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না রাজ্য পার্টির অফিসে। বেসরকারি নিরাপত্তা রক্ষীদের এখানে রাখা হচ্ছে। তার সঙ্গে বিধায়ক এবং সাংসদদের নিরাপত্তারক্ষীরা তো থাকছেনই।

বন্ধ করুন