বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুখ্যসচিব–স্বরাষ্ট্রসচিবকে তলব করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন, আজ জরুরি বৈঠক
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। 
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। 

মুখ্যসচিব–স্বরাষ্ট্রসচিবকে তলব করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন, আজ জরুরি বৈঠক

  • আজ, শনিবার রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে তলব করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেখানে থাকবেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবও।

মাস পোহালেই ডিসেম্বর মাসে কলকাতা–হাওড়ায় পুরসভা নির্বাচন হবে। রাজ্য সরকার ১৯ ডিসেম্বর এই দুই পুরসভার নির্বাচন করতে চায়। তাতে সিলমোহর দিয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। কিন্তু আজ, শনিবার রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে তলব করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেখানে থাকবেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবও। এখানের বৈঠকে পুরভোট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। সেখানে থাকার কথা রাজ্য পুলিশের ডিজিরও। এমনকী কলকাতা–হাওড়ার পর বকেয়া পুরসভার নির্বাচন নিয়েও হবে আলোচনা বলে সূত্রের খবর।

রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর সূত্রে খবর, আগামী ডিসেম্বর মাসেই হচ্ছে পুরভোট। তাই তার প্রস্তুতি শুরু করে দেওয়া হল। কোনও বিতর্ক তৈরি হোক তা চায় না কমিশন। তাই নিয়ম–বিধি মেনে এই দুই পুরসভা নির্বাচন করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। নিরাপত্তা এবং নিয়ম যাতে সম্পূর্ণভাবে মানা হয় তার জন্যই আজকের এই বৈঠক। রাজ্য প্রশাসন এবং পুলিশ কোন কোন দায়িত্ব পালন করবে তা নিয়ে বৈঠক করতেই মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি–কে ডাকা হয়েছে।

একুশের নির্বাচন এবং বেশ কয়েকটি উপনির্বাচন ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে। তাই প্রশাসনিক প্রস্তুতি অনেকটা হয়ে রয়েছে বলে মনে করছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দফতর। তা জানতেই এই প্রথম বৈঠক হতে চলেছে বলে খবর। কলকাতা–হাওড়ার পুলিশ এবং প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলবেন কমিশনের আধিকারিকরা। এখানে প্রশাসনিক প্রস্তুতি খতিয়ে দেখাই মূল উদ্দেশ্য।

জানা গিয়েছে, এই বৈঠককে বলা হয় ফার্স্ট লেভেল চেকিং। পুরভোট নিয়ে যাতে কোনও রাজনৈতিক দল আদালতের দরজায় কড়া না নাড়ে তার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। সেখানে নানা বিষয় আজ তুলে ধরবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। পক্ষান্তরে, জবাব দিতে হবে রাজ্য প্রশাসনকে। এই পর্ব মিটে গেলেই বিজ্ঞপ্তি জারি করবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। রাজনৈতিক দলগুলিও ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। তাই কমিশনও বিষয়টি নিয়ে দ্রুত কাজ সেরে ফেলতে চাইছে।

বন্ধ করুন