বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মেধাবী পড়ুয়াদের বৃত্তি খাতে বাড়ল অর্থ বরাদ্দ, ৩৯৫ কোটি থেকে বেড়ে ১২০০ কোটি
মেধাবী পড়ুয়াদের বৃত্তি খাতে বাড়ল অর্থ বরাদ্দ, ৩৯৫ কোটি থেকে বেড়ে ১২০০ কোটি। প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই। (PTI)

মেধাবী পড়ুয়াদের বৃত্তি খাতে বাড়ল অর্থ বরাদ্দ, ৩৯৫ কোটি থেকে বেড়ে ১২০০ কোটি

  • গত বছর এই বৃত্তি সংক্রান্ত পোর্টাল চালু করেছিল শিক্ষা দফতর।

পরিবারের আর্থিক সমস্যা যাতে কোনওভাবেই মেধাবী পড়ুয়াদের পড়াশোনায় অন্তরায় হয়ে না দাঁড়ায় তার জন্য একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিনস স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের মাধ্যমে মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য বৃত্তি দেওয়া হয়। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইছেন আরও বেশি সংখ্যক পড়ুয়ার কাছে এই স্কলারশিপের সুযোগ পৌঁছে দিতে। সেই কারণে এই বৃত্তি খাতে বরাদ্দ আরও বাড়াল রাজ্য সরকার।

শিক্ষা দফতর সূত্রের খবর, এই বৃত্তি খাতে প্রায় তিন গুণ অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। যার পরিমাণ হল ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা। গত বছর এই বৃত্তি সংক্রান্ত পোর্টাল চালু করেছিল শিক্ষা দফতর। সেই সময় আবেদন জমা পড়েছিল প্রায় ৩ লক্ষ। তবে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে তারও বেশি আবেদন জমা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৬ লাখের বেশি আবেদন জমা পড়েছে বলে শিক্ষা দফতর সূত্রে জানা যাচ্ছে। এর মধ্যে আবার সবচেয়ে বেশি আবেদন জমা পড়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা থেকে।

ইতিমধ্যেই বেশকিছু ছাত্র-ছাত্রী টাকা পেতে শুরু করেছেন। যে সংখ্যাটা হল ১ লক্ষ ৮০ হাজারের বেশি । যেহেতু আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা এখনও শেষ হয়নি ফলে এই বৃত্তির জন্য আরও বেশি আবেদন জমা পড়ে বলে আশা করছে শিক্ষা দফতর।

প্রসঙ্গত, গত শিক্ষাবর্ষে এই খাতে ৩৯৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। এই বৃত্তি পাওয়ার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের প্রথমে শেষ পরীক্ষায় ৭৫ শতাংশ নম্বর বাধ্যতামূলক করা হলেও পরবর্তী সময়ে তা কমিয়ে ৬০ শতাংশ করা হয়েছে। পাশাপাশি, পরিবারের বার্ষিক আয় আড়াই লক্ষের কম হতে হবে। তবেই ছাত্র ছাত্রীরা এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বন্ধ করুন