বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যের ৩৫ হাজার মানুষকে কাজ দেবে 'জীবন হাব', নয়া কর্মসূচি রাজ্যের
রাজ্যের ৩৫ হাজার মানুষকে কাজ দেবে ' জীবন হাব', নয়া কর্মসূচি রাজ্যের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
রাজ্যের ৩৫ হাজার মানুষকে কাজ দেবে ' জীবন হাব', নয়া কর্মসূচি রাজ্যের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

রাজ্যের ৩৫ হাজার মানুষকে কাজ দেবে 'জীবন হাব', নয়া কর্মসূচি রাজ্যের

  • গ্রামীণ এলাকায় কর্মসংস্থান বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্যের ক্ষুদ্র এবং কুটির শিল্প দফতর। এর জন্য একটি নতুন কর্মসূচি চালু করছে এই দফতর। নাম হল 'জীবন হাব'।

বিরোধীদের প্রায়ই শাসক দলকে বেকারত্ব নিয়ে আক্রমণ করতে শোনা যায়। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে কর্মসংস্থান বাড়াতে উদ্যোগী হচ্ছে সরকার। সেই লক্ষ্যে গ্রামীণ এলাকায় কর্মসংস্থান বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্যের ক্ষুদ্র এবং কুটির শিল্প দফতর। এর জন্য একটি নতুন কর্মসূচি চালু করছে এই দফতর। যার নাম হল 'জীবন হাব'। জানা যাচ্ছে, প্রাথমিকভাবে খড়দহ বিধানসভার অন্তর্গত ব্যারাকপুর ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির বিলকিন্দা গ্রাম পঞ্চায়েতে এই কর্মসূচি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হবে। সফল হলে রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তে এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প দফতর সূত্রে জানা যাচ্ছে, এই কর্মসূচির মাধ্যমে মানুষকে ক্ষুদ্র এবং কুটির শিল্পে আগ্রহী করে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে। এর মাধ্যমে গ্রামের মানুষদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে। প্রাথমিকভাবে ব্যারাকপুর ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতিতে এই কর্মসূচি চালু করা হলেও রাজ্যের ৩৪২টি ব্লকেই এই কর্মসূচি চালুর পরিকল্পনা রয়েছে ক্ষুদ্র এবং কুটির শিল্প দফতরের।

দফতরের মন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতো জানিয়েছেন, 'ব্যারাকপুরের পর কাজ শুরু হবে মেদিনীপুরের শালবনিতে। সেখানে চারটি গ্রাম পঞ্চায়েতে কাজ শুরু হবে। সফল হলে তবে রাজ্যের অন্যান্য প্রান্তে এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।' তিনি বলেন, 'এই লক্ষ্যে প্রথমে ব্লকে ব্লকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ দ্রুত শুরু হবে। তারপর দক্ষতা অনুযায়ী মানুষকে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেওয়া হবে।' মন্ত্রীর মতে, গ্রামীণ এলাকায় ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প গুরুত্বপূর্ণ। তিনি জানান, 'প্রতিটি ব্লক থেকে ১০০ জনকে এই কর্মসূচির আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়েছি।' এর ফলে রাজ্যের ৩৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে তিনি দাবি করেছেন।

বন্ধ করুন