ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

মার খাওয়ার ভয়ে সেনা নামিয়েছে রাজ্য সরকার: দিলীপ ঘোষ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘রাজ্য সরকারের বিলম্বিত বোধদয় হয়েছে। দিদিমণি ভেবেছিলেন একাই সামলে নেবেন। শেষে ভয় পেয়ে সেনা নামাতে হয়েছে।’

ঘূর্ণিঝড় আমফানের বিপর্যয় মোকাবিলায় দেরিতে সেনা নামানো হয়েছে বলে অভিযোগ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তুলোধোনা করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শনিবার সাংবাদিকদের দিলীপবাবু বলেন, ‘ভয়ের চোটে সেনা নামিয়েছে সরকার।’

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘রাজ্য সরকারের বিলম্বিত বোধদয় হয়েছে। দিদিমণি ভেবেছিলেন একাই সামলে নেবেন। শেষে ভয় পেয়ে সেনা নামাতে হয়েছে।’ দিলীপবাবুর কথায়, ’৭২ ঘণ্টার পরও কলকাতায় বিদ্যুৎ ফেরেনি। মার খাওয়ার ভয়ে সেনা নামিয়েছে সরকার।’

বলে রাখি, বুধবার রাতে আমফান বয়ে যাওয়ার পর থেকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকা। কলকাতার বহু জায়গায় এখনো বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। নেই জল। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা ও জেলার বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। 

শনিবার নবান্নে এই নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পর সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, বিপর্যয় মোকাবিলায় গোটা রাজ্যে ১০০০ দল দিনরাত কাজ করছে। কিন্তু সব কিছু আমার হাতে নেই। কলকাতায় বিদ্যুৎ ফিরতে সাত দিন লাগবে। গ্রামে কবে বিদ্যুৎ ফিরবে জানি না। 

এর পরই সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্র দফতরের তরফে টুইট করে জানানো হয়, বিপর্যয় মোকাবিলায় সেনাকে তলব করেছে রাজ্য সরকার। টুইট করার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে ময়দানে নেমে পড়ে সেনাবাহিনী। কলকাতা শহর ও লাগোয়া এলাকায় গাছ কেটে রাস্তা পরিষ্কার করতে শুরু করে তাঁরা। রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

 

বন্ধ করুন