বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতা–হাওড়ায় পুরভোট হোক ১৯ ডিসেম্বর, নির্বাচন কমিশনকে চিঠি নবান্নের
কলকাতা পুরসভা।
কলকাতা পুরসভা।

কলকাতা–হাওড়ায় পুরভোট হোক ১৯ ডিসেম্বর, নির্বাচন কমিশনকে চিঠি নবান্নের

  • উৎসবের মরশুম শেষ হলেই পুরসভার নির্বাচন করা হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উপনির্বাচন শেষ হতে না হতেই বেজে গেল পুরসভা ভোটের দামামা। আগামী ডিসেম্বর মাসেই পুরসভা নির্বাচন হোক চায় নবান্ন। তবে সেটা কলকাতা ও হাওড়া পুরসভার ক্ষেত্রে বলে নবান্ন সূত্রে খবর। আগামী ১৯ নভেম্বর এই দুই পুরসভার ভোট করতে চাইছে রাজ্য সরকার। এমনকী রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে এই মর্মে চিঠি দিয়েছে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর।

কিন্তু শুধু এই দুটি পুরসভার নির্বাচন কেন?‌ নবান্ন সূত্রে খবর, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ধাপে ধাপে পুরসভা নির্বাচন করতে চায় রাজ্য সরকার। রাজ্যে এখন বহু পুরসভার নির্বাচন বাকি রয়েছে। ১৯ ডিসেম্বর পুরনির্বাচন এবং ভোট গণনার দিন ২২ ডিসেম্বর করতে চায় রাজ্য সরকার। এই নিয়ে দ্রুত প্রস্তুতি শুরু করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে।

উৎসবের মরশুম শেষ হলেই পুরসভার নির্বাচন করা হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিয়ম অনুযায়ী, পুরসভা এবং পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক করে রাজ্য সরকার। তারপর রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আলোচনার প্রেক্ষিতে নির্ঘন্ট চূড়ান্ত হয়ে থাকে। তাই কলকাতা পুরসভার ১৪৪টি এবং হাওড়া পুরসভার ৬৬টি ওয়ার্ডের ভোট করাতে চায় রাজ্য সরকার।

উল্লেখ্য, রাজ্যে এখন ১১৪টি পুরসভার ভোট বাকি রয়েছে। প্রতিটি জায়গাতেই প্রশাসকেরা কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এই বিষয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘‌আমরা সবসময় ভোটের জন্য প্রস্তুত। মানুষের কাছে মাথা নত করে চলি। মানুষের সমর্থন আমাদের সঙ্গে আছে। তাই যে কোন সময় ভোট হলে অসুবিধা হবে না। তবে কখন, কবে ভোট হবে সেটা আমি জানি না।’‌

বন্ধ করুন