বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Duare Ration: দুয়ারে রেশন নিয়ে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ, সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে রাজ্য

Duare Ration: দুয়ারে রেশন নিয়ে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ, সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে রাজ্য

দুয়ারে রেশন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য (HT Photo)

২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর থেকে দুয়ারে রেশন প্রকল্প শুরু করেছিল রাজ্য সরকার। একুশের নির্বাচনে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্ষমতায় ফেরার পরই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, এখন থেকে প্রতি বাড়িতে গিয়ে রেশন সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে। তারই নাম দেওয়া হয় দুয়ারে রেশন প্রকল্প।

‘‌দুয়ারে রেশন’‌ প্রকল্পকে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ অবৈধ এবং বেআইনি বলে খারিজ করে দিয়েছে। তাই এবার কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে রাজ্য সরকার। কলকাতা হাইকোর্ট আজ, বুধবার যে রায় দিয়েছে সেই অর্ডারের কপি হাতে পাওয়ার পরেই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করবে রাজ্যের খাদ্য দফতর। সূত্রের খবর, সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের অর্ডারের কপি এবং দুয়ারে রেশন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের যে পর্যবেক্ষণ ছিল সেটা তুলে ধরবে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রায় 8 কোটি মানুষ দুয়ারে রেশন প্রকল্পের মাধ্যমে সুবিধা পাচ্ছেন। দুয়ারে রেশন প্রকল্পের নিয়মে কিছু পরিবর্তন বা সংশোধন করা যেতে পারে। কিন্তু গোটা প্রকল্পকে খারিজ করা হবে কেন?‌ সুপ্রিম কোর্টে এই প্রশ্নই রাখতে চায় রাজ্য সরকার।

ঠিক কী বলেছে কলকাতা হাইকোর্ট?‌ বিচারপতি চিত্তরঞ্জন দাশ এবং বিচারপতি অনিরুদ্ধ রায়ের ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ, আইনের চোখে এই প্রকল্পের কোনও গ্রহণযোগ্যতা নেই। রাজ্যের ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পকে অবৈধ।এই প্রকল্প ‘জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন—২০১৩ সালের পরিপন্থী। দুয়ারে রেশন প্রকল্পের আইনি বৈধতা নেই। কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে রাজ্য সরকার।

কবে থেকে শুরু হয়েছিল এই প্রকল্প?‌ ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর থেকে দুয়ারে রেশন প্রকল্প শুরু করেছিল রাজ্য সরকার। একুশের নির্বাচনে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্ষমতায় ফেরার পরই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, এখন থেকে প্রতি বাড়িতে গিয়ে রেশন সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে। তারই নাম দেওয়া হয় দুয়ারে রেশন প্রকল্প। তারপরই একটি মামলা হয়েছিল এই কলকাতা হাইকোর্টে। কিন্তু আদালত সেই মামলা খারিজ করে দিয়েছিল। পরে বিচারপতি চিত্তরঞ্জন দাশ এবং বিচারপতি অনিরুদ্ধ রায়ের ডিভিশন বেঞ্চে নতুন করে মামলা করেন রেশন ডিলারদের একাংশ। সেখানেই এই প্রকল্প খারিজ করা হয়েছে।

ঠিক কী বলছে তৃমমূল কংগ্রেস?‌ কলকাতা হাইকোর্টের এই রায়ের পর বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায় বলেন, ‘‌এটা সবার জানা উচিত, নয়াদিল্লির সরকার আগেই দুয়ারে রেশন চালু করেছে। পশ্চিমবঙ্গই প্রথম নয়। রাজ্যের মানুষের সুবিধার জন্যই রাজ্য সরকার এই প্রকল্প চালু করেছিল। আমি আদালতের রায়ের সঙ্গে একমত নই।’‌ কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ আগে জানিয়েছিল, দুয়ারে রেশন প্রকল্প বেআইনি নয়।

বন্ধ করুন