বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের সময় বেঁধে দিল স্বাস্থ্য দফতর
চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের সময় বেঁধে দিল স্বাস্থ্য দফতর:  প্রতীকী ছবি (‌সৌজন্য গেটি ইমেজেস)‌ (HT_PRINT)
চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের সময় বেঁধে দিল স্বাস্থ্য দফতর:  প্রতীকী ছবি (‌সৌজন্য গেটি ইমেজেস)‌ (HT_PRINT)

চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের সময় বেঁধে দিল স্বাস্থ্য দফতর

  • স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জারি করা এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি কাজ করানো যাবে না। শুধু তাই নয়, রাতের বেলায় তাঁদের ডিউটির সময় ৬-‌৭ ঘন্টা করতে বলা হয়েছে। এই মুহূর্তে হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত কর্মী, নার্স ও চিকিৎসক থাকায়, তাঁদের সপ্তাহে ‌২-‌৩ দিন করে ছুটি দিতে হবে বলেও নির্দেশিকায় জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর।

টানা প্রায় দেড় বছর ধরে এক নাগাড়ে কাজ করে চলেছেন চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্মীরা। করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাঁচাতে প্রাণপণে লড়ে যাচ্ছেন প্রথম সারির যোদ্ধারা। এই পরিস্থিতিতে কাজের চাপ অত্যাধিক বেড়ে যাওয়ায়, পরিবারকে সময় দিতে পারছেন না তাঁরা। বেশি সময় ধরে কাজ করার ফলে অসুস্থ্যও হয়ে পড়ছেন চিকিৎসকরা। এবার সেই দিক লক্ষ্য রেখে তাঁদের কাজের সময় বেঁধে দিল স্বাস্থ্য দফতর। করোনা আবহের মধ্যে কতক্ষণ কাজ করতে হবে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের তার সময়সীমা বেঁধে নির্দেশিকা জারি করেছে স্বাস্থ্য দফতর। এবার থেকে সপ্তাহে দু’‌-তিনদিন করে ছুটি পাবেন চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। পাশাপাশি দিনে ৮ ঘণ্টা ও রাতে ৬-‌৭ ঘণ্টা করে ডিউটি দিতে হবে তাঁদের।

স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জারি করা এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি কাজ করানো যাবে না। শুধু তাই নয়, রাতের বেলায় তাঁদের ডিউটির সময় ৬-‌৭ ঘন্টা করতে বলা হয়েছে। এই মুহূর্তে হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত কর্মী, নার্স ও চিকিৎসক থাকায়, তাঁদের সপ্তাহে ‌২-‌৩ দিন করে ছুটি দিতে হবে বলেও নির্দেশিকায় জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর।

প্রসঙ্গত, করোনা আবহের মধ্যে কাজের চাপ অত্যাধিক মাত্রায় বেড়ে গিয়েছে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদের। সেকারণে ধাপে ধাপে প্রত্যাক বিভাগের শূন্য পদগুলোতে নিয়োগ করা হয়েছে। এ বার রাজ্যের সমস্ত সরকারি হাসপাতালে তাঁদের ডিউটির সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

 

বন্ধ করুন