ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষতিপূরণ বাবদ রাজ্যকে ১,১০০ কোটি টাকা দেবে কেন্দ্র

  • কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, দেশের ৭টি রাজ্যের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে ক্ষয়ক্ষতি বাবদ বকেয়া ছিল ৫,৭৫১ কোটি টাকা।

আপদকালীন পরিস্থিতিতে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের বাবদ রাজ্যগুলির পাওনা গন্ডা মিটিয়ে দিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই বাবদ বকেয়া প্রায় ১১০০ কোটি টাকা পেতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। গত কয়েকদিন ধরেই ‘কেন্দ্র কিছুই দেয়নি’ বলে কাঁদুনি গাইছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার নয়া দিল্লি থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে ক্ষয়ক্ষতির জন্য প্রাপ্য অর্থ মিটিয়ে দেবে কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, দেশের ৭টি রাজ্যের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে ক্ষয়ক্ষতি বাবদ বকেয়া ছিল ৫,৭৫১ কোটি টাকা। সেই টাকা এবার দিতে চলেছে তারা। এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া ১,০৯৮ কোটি টাকা। বুলবুল ও অন্যান্য ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি বাবদ এই টাকা কেন্দ্রের কাছে বকেয়া ছিল রাজ্যের।

পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও মহারাষ্ট্রের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ১,৭৫৮ কোটি টাকা। কেরলের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ১,১৯৮ কোটি টাকা। এছড়া বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ের জন্য ক্ষতিপূরণ পেতে চলেছে বিহার, ওড়িশা, নাগাল্যান্ড, কর্নাটক ও রাজস্থান।

রাজ্যে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ইতিমধ্যে ২০০ কোটি টাকার তহবিল তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে সাধারণ মানুষকে অনুদান দিতেও অনুরোধ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই তহবিল থেকে ইতিমধ্যে মাস্ক, স্যানিটাইজার, ভাইরাস রোধী পোশাক ও ভেন্টিলেটরের অর্ডার দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।



বন্ধ করুন