বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠাত মাদক পাচারকারীরা, কলকাতায় উদ্ধার ৬০ লাখ টাকা
হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠাত মাদক পাচারকারীরা, কলকাতায় উদ্ধার ৬০ লাখ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠাত মাদক পাচারকারীরা, কলকাতায় উদ্ধার ৬০ লাখ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠাত মাদক পাচারকারীরা, কলকাতায় উদ্ধার ৬০ লাখ টাকা

জোড়াসাঁকো এলাকার একটি অফিসে অভিযান।

মাদক পাচার যোগে কলকাতার একটি অফিস থেকে ৬০ লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত করল কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। ওই দফতরের মালিকের কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। 

রবিবার জোড়াসাঁকো এলাকার একটি অফিসে হানা দিয়ে এই হিসাব-বহির্ভূত টাকা বাজেয়াপ্ত করল কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (‌এসটিএফ)‌। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মাদক পাচার যোগে ওই টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। 

গত ১ মার্চ পূর্ব বর্ধমান থেকে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাকে জেরা করেই জোড়াসাঁকোর এই অফিসের খোঁজ পান তদন্তকারীরা। পুলিশের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, মাদক পাচারের সঙ্গে যুক্ত হিসাব-বহির্ভূত ৬০.‌৯৭ লাখ টাকা ওই অফিস থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে ওই আধিকারিক জানিয়েছেন, জোড়াসাঁকো এলাকার ওই দফতরে হাওয়ালার মাধ্যমে টাকা পাঠাত মাদক পাচারকারীরা। ওই দফতরের মালিকের খোঁজ করা হচ্ছে। তার সঙ্গে এই মাদক পাচারের কী যোগসূত্র রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

এসটিএফের আধিকারিকরা ধৃত মাদক পাচারকারীর কাছ থেকে পাঁচ কিলো হেরোইন বাজেয়াপ্ত করেছে। বাজেয়াপ্ত মাদকের আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য ২৫.‌০৯ কোটি টাকা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ওই মাদক পাচারকারীর বিরুদ্ধে এনডিপিএস আইনের ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত মাসে নার্কোটিক কন্ট্রোল ব্যুরো (‌এনসিবি)‌ মুম্বইয়ের তিনটি জায়গা - কোলাবা, নাগপদ ও ডোঙরিতে হানা দিয়ে ১৬ লাখ টাকার মাদক বাজেয়াপ্ত করেছিল।

বন্ধ করুন