বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিমানবন্দরে উদ্ধার হওয়া পাথর ক্যালিফোর্নিয়াম নয়, রিপোর্টে প্রকাশ
উদ্ধার হওয়া সেই সব পাথর
উদ্ধার হওয়া সেই সব পাথর

বিমানবন্দরে উদ্ধার হওয়া পাথর ক্যালিফোর্নিয়াম নয়, রিপোর্টে প্রকাশ

  • তাঁদের কাছে তল্লাশি অভিযান চালাতেই ধুসর রঙের চারটি পাথর ব্যাগ থেকে বেরিয়ে পড়ে।

কয়েকদিন আগেই কলকাতা বিমানবন্দরের খুব কাছ থেকে ৪টি উজ্জ্বল পাথর উদ্ধার করে সিআইডি। প্রথমে মনে করা হয়েছিল উদ্ধার হওয়া ওই ৪টি পাথর পরমাণু বোমা তৈরির উপকরণ ক্যালিফোর্নিয়াম। কিন্তু ভাবা অ্যাটমিক রিসার্চ সেন্টার তা পরীক্ষা করে জানিয়ে দিল, ওই ৪টি পাথর ক্যালিফোর্নিয়াম নয়। সেগুলি আসলে মামুলি পাথর।

গত বুধবার ক্যালিফোর্নিয়াম উদ্ধার করতে গিয়ে সিআইডি ২ জনকে গ্রেফতার করে। একজনের বাড়ি সিঙ্গুরে ও আরেক জনের বাড়ি পোলবা থানার পাউনান গ্রামে। ধৃতদের কাছ থেকে ক্যালিফোর্নিয়াম সন্দেহে যে ৪টি পাথর উদ্ধার করা হয়েছিল, তার ওজন ২৫০.‌৫ গ্রাম। পাথরগুলি যদি সত্যিই ক্যালিফোর্নিয়াম হত, তাহলে এক গ্রাম ক্যালিফোর্নিয়ামের দাম হত ১৭ কোটি টাকা। পাথরগুলির মোট বাজারদর দাঁড়ায় ৪ হাজার ২৫৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা। তবে ভাবা অ্যাটমিক সেন্টারের পাঠানো রিপোর্টে জানানো হয়েছে, পাথরগুলি কোনওভাবেই ক্যালিফোর্নিয়াম বা ইরিডিয়াম নয়। কোনও মূল্যবান পাথরও নয়। সিআইডি আধিকারিকরা মনে করছেন, সাধারণ পাথর দিয়ে বোকা বানানোর জন্যই ওই সব পাথর ব্যবহার করেছিল অভিযুক্তরা।

সূত্র মারফত খবর পেয়ে কলকাতা বিমানবন্দরে হাজির হয়ে যান সিআইডি আধিকারিকরা। অসিত ঘোষ ও শৈলেন কর্মকার নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁদের কাছে তল্লাশি অভিযান চালাতেই ধুসর রঙের চারটি পাথর ব্যাগ থেকে বেরিয়ে পড়ে। তবে প্রাথমিক রিপোর্টে পাথরগুলি ক্যালিফোর্নিয়াম না হওয়ায় সিআইডি গোটা বিষয়টি এখন অন্যভাবে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে।

 

বন্ধ করুন