বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অনলাইনে পরীক্ষার দাবিতে যাদবপুরের পড়ুয়াদের বিক্ষোভ, অসুস্থ উপাচার্য
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি। 

অনলাইনে পরীক্ষার দাবিতে যাদবপুরের পড়ুয়াদের বিক্ষোভ, অসুস্থ উপাচার্য

  • উপাচার্য স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বোর্ডের নেওয়া সিদ্ধান্ত কোনওভাবেই বদলানো যাবে না।’

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের আঁচ পড়ল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। অনলাইনে পরীক্ষার দাবি জানালেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা অনলাইনে দেওয়ার দাবিতে সোমবার থেকে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টি ছাত্র সংসদ (ফেটসু)। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে ঘেরাও করেন পড়ুয়ারা। যদিও উপাচার্য স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বোর্ডের নেওয়া সিদ্ধান্ত কোনওভাবেই বদলানো যাবে না।’ অন্যদিকে, পড়ুয়াদের দাবি মানতে চাইছে না যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (জুটা)। তাদের পাল্টা দাবি, অফলাইনেই পরীক্ষা নিতে হবে।

পড়ুয়াদের বিক্ষোভের মুখে অসুস্থ হয়ে পড়েন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। চিকিৎসক এসে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিলে তাঁকে ছেড়ে দেন পড়ুয়ারা। উপাচার্য না থাকায় সহ-উপাচার্য স্যমন্তক দাস, রেজিস্ট্রার স্নেহমঞ্জু বসু-সহ বেশ কয়েকজন শিক্ষককে আটকে রেখে বিক্ষোভ চালিয়ে যান পড়ুয়ারা। উপাচার্য না থাকায় ফেটসু সহ উপাচার্যকে পরীক্ষা বোর্ডের বৈঠক ডাকার দাবি জানায়। তবে সহ-উপাচার্য তাদের জানিয়ে দেন, ‘কোনওভাবেই তিনি এই বৈঠক ডাকতে পারেন না। কারণ এটি তাঁর এক্তিয়ারের বাইরে।'

পড়ুয়াদের এই আন্দোলনকে অবাঞ্চিত বলে মনে করছেন শিক্ষকরা। জুটা’র সাধারণ সম্পাদক পার্থপ্রতিম রায় বলেন, ‘অনলাইনে পরীক্ষা হলে শিক্ষকরা পরীক্ষা প্রক্রিয়া থেকে বিরত থাকবেন।’ রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির শিক্ষক সংগঠন ‘আবুটা’ মনে করে, ‘প্রশাসনের যে সিদ্ধান্ত তা শক্ত হাতে বলবৎ করা প্রয়োজন।’ যদিও এর প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়ার জন্য ফেটসু’র সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

বন্ধ করুন