বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সারদা–কর্তার থেকে টাকা নিয়েছিলেন শুভেন্দু, আদালতকে বিস্ফোরক চিঠি সুদীপ্ত সেনের
সারদা গোষ্ঠীর কর্ণধার সুদীপ্ত সেন।

সারদা–কর্তার থেকে টাকা নিয়েছিলেন শুভেন্দু, আদালতকে বিস্ফোরক চিঠি সুদীপ্ত সেনের

  • এই চিঠির আগে সুদীপ্ত সেনের অভিযোগ ছিল, তাঁর কাছ থেকে প্রতারণা করে, ব্ল্যাকমেল করে শুভেন্দু অধিকারী টাকা নিলেও সিবিআই পদক্ষেপ করছে না। এবার একটি সমবায় ব্যাঙ্কের কথা উল্লেখ করেছেন সারদা–কর্তা। আর সমবায় ব্যাঙ্কের সঙ্গে জড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারী।

দুর্নীতি, কাটমানি নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারকে বারবার বিঁধেছেন তিনি। এমনকী নাম দিয়েছেন তোলমূল পার্টি। হ্যাঁ, তিনি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এবার তাঁর নামেই আদালতে বিস্ফোরক চিঠি দিলেন সারদা–কর্তা সুদীপ্ত সেন। সূত্রের খবর, প্রেসিডেন্সি জেল থেকে প্রিজনার্স পিটিশনে সুদীপ্ত সেন ওয়েলফেয়ার অফিসারের মাধ্যমে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এবং কলকাতার মুখ্য মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটকে চিঠি পাঠিয়েছেন।

ঠিক কী লিখেছেন চিঠিতে?‌ সূত্রের খবর, ওই চিঠিতে শুভেন্দু অধিকারী তাঁর কাছ থেকে কীভাবে টাকা নিয়েছেন, সে কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকী এই নিয়ে যথাযথ তদন্ত চেয়েছেন সুদীপ্ত সেন। এই চিঠির আগে যেসব চিঠি আদালতকে সুদীপ্ত সেন লিখেছিলেন, সেখানেও শুভেন্দু কীভাবে, কত টাকা, কোথায় নিয়েছেন তার উল্লেখ ছিল। এবার তাতে আরও বাড়তি তথ্য দিলেন সারদা–কর্তা।

জেল থেকে কী জানা যাচ্ছে?‌ এই বিষয়ে প্রেসিডেন্সি জেলের সুপার দেবাশিস চক্রবর্তী সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘বন্দি তাঁর অধিকারে নিয়ম মেনে চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে কী লেখা আছে?‌ আমি জানি না। কারণ ওটা পড়া আমার কাজ নয়। ওয়েলফেয়ার অফিসার চিঠি ছেড়েছেন মানে তাতে আপত্তিকর কোনও শব্দ নেই। আমি পাঠিয়ে দিয়েছি।’

ঠিক কী অভিযোগ সারদা–কর্তার?‌ এই চিঠির আগে সুদীপ্ত সেনের অভিযোগ ছিল, তাঁর কাছ থেকে প্রতারণা করে, ব্ল্যাকমেল করে শুভেন্দু অধিকারী টাকা নিলেও সিবিআই পদক্ষেপ করছে না। এবার একটি সমবায় ব্যাঙ্কের কথা উল্লেখ করেছেন সারদা–কর্তা। আর সমবায় ব্যাঙ্কের সঙ্গে জড়িয়ে শুভেন্দু অধিকারী। এবারের চিঠিটিকে তাই আগের চিঠির সাপ্লিমেন্টারি চিঠি বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন