বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুকুলের প্রসঙ্গ টেনে রাজ্য সরকারকে খোঁচা সুকান্তর
সুকান্ত মজুমদার।

মুকুলের প্রসঙ্গ টেনে রাজ্য সরকারকে খোঁচা সুকান্তর

পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, দল মুকুলবাবুর বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করছেন না। ওটা তাঁর একান্তই ব্যক্তিগত অভিমত।

সম্প্রতি তৃণমূল নেতা মুকুল রায় মন্তব্য করেছিলেন, ভারতীয় জনতা পার্তি মানেই তৃণমূল। মুকুল রায়ের এই বক্তব্যের পাল্টা প্রতিক্রিয়া দিয়ে রাজ্য সরকারকে নিশানা করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তাঁর মতে, মুকুল রায়ের যদি মানসিক ভারসাম্য চলে দিয়ে থাকে, তাহলে যে সরকার তাঁকে পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান করল, তাঁদের ভারসাম্য ঠিকঠাক রয়েছে বলে মনে হয় না।

মুকুল রায়ের প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপি সভাপতি জানান, ‘‌মুকুল রায় একজন বিধায়ক। বিজেপি থেকে জিতেছিলেন। সদ্য তিনি বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। তাঁকে পিএসির চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসই ঠিক করুক তারা কাকে পিএসির চেয়ারম্যান করেছেন। তারা যদি তাঁকে পিএসির চেয়ারম্যান করে থাকেন, তাহলে তৃণমূল সরকারের মানসিক স্থিতি ঠিক আছে বলে মনে হয় না।’‌ উল্লেখ্য, এই বিষয়ে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, দল মুকুলবাবুর বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করছেন না। ওটা তাঁর একান্তই ব্যক্তিগত অভিমত।

এদিকে বিজেপির রাজ্য স্তরে বেশ কিছু পরিবর্তন হয়েছে। রাজ্য স্তরই রদবদল নিয়ে মুখ খুলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার জানান, ‘‌যারা দীর্ঘদিন ধরে জেলার দায়িত্বে ছিলেন, তাঁদের জোনাল দায়িত্বে নিয়ে আসা হয়েছে। এই রদবদল রুটিন রদবদল। প্রত্যেককে নির্দিষ্ট করে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’‌ একইসঙ্গে ওমিক্রন পরিস্থিতির মধ্যে রাজ্যের বাকি পুরসভাগুলিতে ভোট করা ঠিক হবে কিনা, তা নিয়েও মুখ খোলেন সুকান্তবাবু। তাঁর মতে, ওমিক্রন বাড়লে রাজ্য সরকারের ভোট করানোর ব্যাপারে পুনর্বিবেচনা করা উচিত। তবে বিজেপি ভোট করানোর ব্যাপারে তৈরি আছে।

বন্ধ করুন