বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > শিল্পপতিদের সামনে রেখে কি নিজের পরিবারকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন মুখ্যমন্ত্রী?
সুকান্ত মজুমদার। নিজস্ব চিত্র

শিল্পপতিদের সামনে রেখে কি নিজের পরিবারকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন মুখ্যমন্ত্রী?

  • বুধবার নিউ টাউনে শিল্প সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে মঞ্চে হাজির ছিলেন দেশের তাবড় শিল্পপতিরা। এদিন সম্মেলনে উদ্বোধনী ভাষণ দেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

শিল্প সম্মেলনে শিল্পপতিদের নাম করে কি নিজের পরিবারকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? বুধবার বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনে শিল্পপতিদের কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে মমতার অভিযোগে পালটা প্রশ্ন তুললেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। যা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

এদিন সুকান্তবাবু বলেন, আমাদের দুর্ভাগ্য মুখ্যমন্ত্রী কোথায় কী বলতে হয় জানেন না। শিল্প সম্মেলনটা রাজনৈতিক বিরোধ দেখানোর জায়গা নয়। যে সমস্ত শিল্পপতিদের সামনে উনি এসব বলেছেন তাঁরা দেশের অন্যান্য রাজ্যে বিনা বাধায় শিল্প স্থাপন করছেন। মুখ্যমন্ত্রী কি শিল্পপতিদের নাম করে নিজের পরিবারকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেন’?

বুধবার নিউ টাউনে শিল্প সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে মঞ্চে হাজির ছিলেন দেশের তাবড় শিল্পপতিরা। এদিন সম্মেলনে উদ্বোধনী ভাষণ দেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সম্মেলনে নিজের বক্তব্যের শেষে রাজ্যপালকে মমতা বলেন, ‘আপনার কাছে আমার অনুরোধ শিল্পপতিদের যেন কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে বিব্রত করা না হয় বিষয়টি আপনি দেখুন। রাজ্যপালদের সম্মেলনে বিষয়টি উত্থাপন করুন।’

এদিন তাঁর বক্তব্যে রাজ্যের সম্ভাবনার দিকগুলি তুলে ধরেন মমতা। বলেন, এই রাজ্যে কোনও ভেদাভেদ নেই। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করে তাঁর সরকার। একই সঙ্গে রাজ্যের শিল্পোন্নয়নে কেন্দ্রীয় আন্তরিক সহযোগিতা দাবি করেছেন তিনি।

সম্মেলনের প্রথম দিনে রাজ্যে ১০,০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগের আশ্বাস দিয়েছেন আদানি গোষ্ঠীর কর্ণধার গৌতম আদানি। লৌহ ইস্পাত শিল্পে বিনিয়োগের আশ্বাস দিয়েছে টাটা গোষ্ঠী। যদিও রাজ্যের এই শিল্প সম্মেলনকে ‘টাকার শ্রাদ্ধ’ বলে সম্মোধন করেছেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ।

 

বন্ধ করুন