বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের প্রধান ফটক। ফাইল ছবি
বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের প্রধান ফটক। ফাইল ছবি

জ্বর সারছে না, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি-তে ভর্তি হলেন যুবক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এখনো পর্যন্ত ৭ জনকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হলেও কারও দেহে করোনাভাইরাসের নমুনা মেলেনি।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হল পূর্ব মেদিনীপুরের এক যুবককে। বেশ কিছুদিন জ্বরে ভোগার পর ওষুধে নিরাময় না হওয়ায় তাঁকে কলকাতায় রেফার করেন স্থানীয় চিকিত্সক। ওই যুবকের লালার নমুনা নাইসেডে পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার পর বোঝা যাবে আদৌ নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কি না তিনি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এখনো পর্যন্ত ৭ জনকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হলেও কারও দেহে করোনাভাইরাসের নমুনা মেলেনি। তার মধ্যে ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাসের চিহ্ন নেই বলে আগেই পরীক্ষায় জানা গিয়েছিল। মঙ্গলবার আরও ৩ জনের রিপোর্ট পাঠিয়েছে নাইসেড। সেগুলোও সব নেগেটিভ।

নভেল করোনাভাইরাসের প্রভাবে প্রায় কার্ফুর চেহারা নিয়েছে চিনের বিশাল এলাকা। চিনা নাগরিকদের অভিবাসনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিভিন্ন দেশ। মঙ্গলবার পর্যন্ত শুধুমাত্র চিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর নিরিখে যা সার্সকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে বলে মেনে নিয়েছে চিন।

ওদিকে চিনে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রভাব পড়েছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যেও। চিনে পণ্যসরবরাহকারী একাধিক সংস্থা বড়সড় লোকসানের আশঙ্কা করছে।

যদিও করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে তারা খুব সতর্ক বলে জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ স্বাস্থ্য দফতর। কলকাতার ৬টি মেডিক্যাল কলেজে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের জন্য আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করা হয়েছে। তবে বেলেঘাটা আইডি ছাড়া এখনো কোথাও ভর্তি করা হয়নি কাউকেই।


বন্ধ করুন