বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মানুষ বলছে, পার্থ কেষ্ট চুনোপুঁটি, সব খেয়েছে হাওয়াই চটি: শুভেন্দু
শুভেন্দু অধিকারী। নিজস্ব চিত্র

মানুষ বলছে, পার্থ কেষ্ট চুনোপুঁটি, সব খেয়েছে হাওয়াই চটি: শুভেন্দু

  • এদিন শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী তো ছিলেন ওনার মন্ত্রিসভার সেকেন্ড ম্যান। ওনার দলের মহাসচিব ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। ভোটের সময় বলে ২৯৪টায় আমিই প্রার্থী। আবার যখন বেকায়দায় পড়ে বলে, ও করেছে, আমি করিনি।

বাম জমানায় শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি হয়ে বলে দাবি করলেও নথি যে তাঁর কাছে নেই তাও এদিন স্বীকার করে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার শিক্ষারত্ন প্রদান অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যকে একযোগে আক্রমণ করেছে বাম ও বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

এদিন শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী তো ছিলেন ওনার মন্ত্রিসভার সেকেন্ড ম্যান। ওনার দলের মহাসচিব ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। ভোটের সময় বলে ২৯৪টায় আমিই প্রার্থী। আবার যখন বেকায়দায় পড়ে বলে, ও করেছে, আমি করিনি। তাই তো মানুষ বলছে, পার্থ কেষ্ট চুনোপুঁটি, সব খেয়েছে হাওয়াই চটি’।

আমার মনে হয়, পার্থকে এই পরিস্থিতিতে আনা হয়েছে, দাবি রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের

রাজ্যসভার বাম সাংসদ তথা আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, ‘ওই মহিলা যদি নৈতিকতার কথা বলেন তাহলে বুঝতে হবে নৈতিকতার গঙ্গাযাত্রা হয়ে গেছে। উনি শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এমন দুর্নীতি করেছেন যাতে ওনার কোনও কথা কেউ বিশ্বাস করছেন না। তাই ওনার রাতের ঘুম উড়ে গেছে। কোনও সুস্থ মানুষ এসব কথা বলতে পারেন না। তৃণমূল কর্মীরা ওর মানসিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন। উনি ১১ বছর থাকার পর মনে হল বামেদের কাগজ আমাদের কাছে নেই। উনি চাকরি দেওয়ার নাম করে কোটি কোটি টাকা কামাতে চাইছেন। সেটা হচ্ছে না, হতে দেবও না’।

 

বন্ধ করুন