বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রুজিরা নারুলা কে? পরিচয়টা ঘোষণা করুন, নয় মানহানির মামলা করুন, অভিষেককে শুভেন্দু
শুভেন্দু অধিকারী। নিজস্ব ছবি।

রুজিরা নারুলা কে? পরিচয়টা ঘোষণা করুন, নয় মানহানির মামলা করুন, অভিষেককে শুভেন্দু

  • এদিন শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘সব থেকে বড় তোলাবাজ ও নিজেই, রুজিরা নারুলা কে? তার পরিচয়টা ঘোষণা করুক। কয়লার টাকা কে তুলত, বলে দিলেই তো হয়। অন্য অনেক কথা নিয়ে তো মানহানির মামলা করেছে।

২১ জুলাইয়ের সমাবেশ উপলক্ষে অভিষেকের চাঁদা না তোলার নির্দেশকে চরম কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন তিনি পালটা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেই ‘সব থেকে বড় তোলাবাজ’ বলে আক্রমণ করেন। সঙ্গে অভিষেকের স্ত্রীর আসল পরিচয় নিয়েও চ্যালেঞ্জ ছোড়েন তিনি।

এদিন শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘সব থেকে বড় তোলাবাজ ও নিজেই, রুজিরা নারুলা কে? তার পরিচয়টা ঘোষণা করুক। কয়লার টাকা কে তুলত, বলে দিলেই তো হয়। অন্য অনেক কথা নিয়ে তো মানহানির মামলা করেছে। কিন্তু এটা নিয়ে তো করে না। কারণ আমি চেক দেখাই।’

বলে রাখি, গত বৃহস্পতিবার অভিষেকের পত্নী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সিজিও কমপ্লেক্সে তলব করেছিল ইডি। তলবে সাড়া দিয়ে ছেলেকে কোলে নিয়ে ইডির দফতরে পৌঁছেছিলেন তিনি। সূত্রের খবর, ইডি তাঁকে রুজিরা নারুলার সই করা থাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কের একটি চেক দেখায়। কিন্তু সেই ব্যক্তি তিনি নন বলে দাবি করেন রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পরই শুক্রবার সারদার একটি মামলার শুনানিতে শুভেন্দু অধিকারীর নাম করেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেন। তাঁর দাবি, ব্ল্যাকমেল করে তাঁর কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আদায় করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। যাতে প্রশ্ন উঠছে, প্রায় ১০ বছর পর কেন একথা মনে পড়ল সারদাকর্তার? এর সঙ্গে রুজিরার ইডির জেরার কোনও সম্পর্ক রয়েছে কি?

 

বন্ধ করুন